Home » চলচ্চিত্র » বিশ্ববিদ্যালয়ের চলচ্চিত্র সিলেবাসে নেই বাংলাদেশের গুনী মানুষ
vat-dey

বিশ্ববিদ্যালয়ের চলচ্চিত্র সিলেবাসে নেই বাংলাদেশের গুনী মানুষ

Share Button

মিডিয়া খবর:-                    -: ফজলে এলাহী পাপ্পু :-

চলচ্চিত্র নিয়ে যারা পড়াশুনা করছে তাদের কাছ থেকে একটা ব্যাপারে পরিস্কার হলাম যে আমাদের দেশে যে সকল বিশ্ববিদ্যালয়ে চলচ্চিত্র বিষয়ে শিক্ষার্থীরা পড়ছে সেখানে বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের গুনী মানুষদের সম্পর্কে কোন কিছু শেখানো হয় না,  এমনকি তাদের চলচ্চিত্রগুলো নিয়ে কোন আলোচনা হয় না। গুনী সেইসব মানুষদের চলচ্চিত্র থেকে কাহিনী, চিত্রনাট্য, সংলাপ রচনা কোন কিছুই শেখানো হয় না। আমাদের শিক্ষার্থীরা জানে না বাংলাদেশে এহতেশাম, খান আতাউর রহমান, সুভাষ দত্ত, জহির রায়হান, আমজাদ হোসেন, নারায়ণ ঘোষ মিতা, চাষি নজরুল ইসলাম, এ জে মিন্টু, শহিদুল ইসলাম খোকন, কাজি হায়াত এর মতো মেধাবী পরিচালকরা ছিলেন । যারা আমাদের চলচ্চিত্রকে অনেক সীমাবদ্ধতার মাঝেও এগিয়ে নিয়ে গেছেন, আমাদের চলচ্চিত্র শিল্পকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন । যারা রাজ্জাক, আলমগীর, সোহেল রানা, উজ্জ্বল, জাফর ইকবাল, শাবানা, কবরী, ববিতা’র মতো অসংখ্য অসংখ্য অভিনেতা অভিনেত্রীদের তৈরি করেছেন।
আমজাদ হোসেন এর নির্মিত ‘গোলাপি এখন ট্রেনে’ ও ‘ভাত দে’ ছবি দুটো ১৯টি শাখায় জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেছিল। সেই সময় চলচ্চিত্রের পরিচালক হিসেবে আরও যারা ছিলেন তাঁরা হলেন এহতেশাম, খান আতাউর রহমান, সুভাষ দত্ত, আলমগীর কবির, আব্দুল্লাহ আল মামুন, কামাল আহমেদ, মিতা, জহিরুল হক, ইবনে মিজান এর মতো মেধাবী পরিচালকরা। অথচ সবার ছবি ছাপিয়ে আমজাদ হোসেন এর ছবিগুলো কেন এতো জাতীয় পুরস্কার পেয়েছিল সেটা আমাদের তরুণরা জানে না, তাদের কোনদিন জানতে দেয়া হয়নি। পরিচালক এ জে মিন্টু কেন ৪ বার শ্রেষ্ঠ পরিচালকের জাতীয় পুরস্কার লাভ করেছিলেন। মিন্টু যখন ছবি নির্মাণ করতেন তখন পূর্বে উল্লেখিত মেধাবী পরিচালকরা তো ছিলেনই বরং সেই সময় সেই মেধাবিদের তালিকা আরও দীর্ঘ ছিল। পুরনোদের সাথে সেই সময় আরও ছিলেন শিবলি সাদিক, আলমগীর কুমকুম, কাজী হায়াত, মতিন রহমান, শহিদুল ইসলাম খোকন, দিলিপ বিশ্বাস, মালেক আফসারি, দেওয়ান নজরুল এর মতো বক্স অফিস কাঁপানো পরিচালকবৃন্দ। অথচ এতো মেধাবিদের ছাপিয়ে কেন মিন্টু এতবার শ্রেষ্ঠ পরিচালক হলেন সেই সম্পর্কে কেউ জানে না, জানতে চায়নি। আমরা আমাদের শিক্ষার্থীদের শুধু বিদেশি পরিচালকদের সম্পর্কে ও তাদের কাজগুলো নিয়ে আলোচনা করে মহাজ্ঞানী হিসেবে গড়ে তুলছি অথচ সেই মহাজ্ঞানীরা জানেই না নিজ দেশের গুনী পরিচালকদের সম্পর্কে। এই মহাজ্ঞানীদের কাছ থেকে আপনি কি করে নিজদেশের শিল্পকে এগিয়ে নেয়ার মতো ভরসা পাবেন? এরা কি করে আমাদের দেশের শিল্প, ইতিহাস ঐতিহ্যকে ধারণ করবে ভাবতে পারেন? এরা তো আমাদের গুনীদের অবজ্ঞা করাই শিখছে যার জন্য দায়ী আমরা। আমরা কোনদিন বলতে পারিনি চলচ্চিত্রের পাঠ্যপুস্তকে বিদেশি গুণী মানুষদের পাশাপাশি আমাদের বাংলাদেশের গুণী মানুষদের কর্মগুলো অন্তর্ভুক্ত করতে হবে । আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মের দৈনতার জন্য আমরাই দায়ী ।

Check Also

nuru miah o tar beauty driver

নুরু মিয়া ও তার বিউটি ড্রাইভার

মিডিয়া খবর :- গত ২৪ জানুয়ারি কোনও কর্তন ছাড়াই বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের ছাড়পত্র পায় …

tanha, shuva

ভাল থেকো চলচিত্রের পোস্টার প্রকাশ

মিডিয়া খবর:- প্রকাশ হল জাকির হোসেন রাজুর নির্মিতব্য চলচিত্রের পোস্টার। জাকির হোসেন রাজুর নির্মাণে আসছে নতুন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares