Home » টিভি নাটক » বৈশাখীর পিটি রতন সিটি খোকন
PITI-RATAN

বৈশাখীর পিটি রতন সিটি খোকন

Share Button

মিডিয়া খবর:-             -: মামুন লাচ্চু :-

কিশোরদের জন্য নির্মিত হলো ছয় পর্বের বিশেষ ঈদ ধারাবাহিক নাটক ‘পিটি রতন সিটি খোকন’। পলাশ POLASHমাহবুবের কিশোর উপন্যাস ‘পিটি রতন সিটি খোকন’ থেকে নাট্যরূপ দিয়েছেন লেখক নিজেই।

নাটকের কাহিনীতে দেখা যাবে লাবু, আতিক, মনির আর রতন গকুলনগর উচ্চ বিদ্যালয়ের চার সহপাঠী বন্ধু। এই স্কুলে সবার নামের আগে বিশেষণ বসানো হয়, এটাই নিয়ম। তবে অযৌক্তিকভাবে কিছু হয় না। সব বিশেষণের পেছনে একটা ইতিহাস কিংবা যুক্তি থাকে। লাবুর নাম যেমন লেডিস লাবু, তেমনি অটো আতিক এবং ব্যাকআপ মনির। আবার রতনের নাম তেমনি পিটি রতন। গকুলনগর উচ্চ বিদ্যালয়ের সব শিক্ষকই এক একটি চরিত্র। ড্রিলের কুদ্দুস স্যার রোগা-পটকা-লম্বা বলে তার নাম ধুন্দল স্যার। স্যারদের মধ্যে সবচে এগিয়ে প্রধান শিক্ষক সুন্দর আলী। নাম সুন্দর হলেও কাজ-কর্মে তেমন সুবিধার না। অন্তত স্কুলের ছাত্র-PITI-RATAN-1ছাত্রীদের কাছে। কারণ হুটহাট তার মাথায় একেকটা আইডিয়া আসে এবং সেই আইডিয়া বাস্তবায়নের ভার পড়ে স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের কাঁধে। এই যেমন বৃক্ষরোপন আন্দোলন। গার্ডেনিং ক্লাস বাধ্যতামূলক করে ছাত্রদের তিনি বাগানে পাঠিয়ে দিলেন, উদ্দেশ্য ওজন স্তরের ফুটো আটকানো। কিন্তু মজার বিষয় হচ্ছে হেডস্যারের কোন আইডিয়া-ই শেষ পর্যন্ত সফলতার মুখ দেখেনা। সফল না হওয়ার পেছনে ছাত্রদের ভূমিকা যেমন থাকে তেমনি থাকে আরও অনেকের অংশগ্রহণ। সর্বশেষ হেডস্যারের মাথায় আসে ড্রিল ক্লাসের পরিকল্পনা। তিনি খেয়াল করে দেখেছেন স্কুলের ছেলেরা রোগা পটকা হয়ে যাচ্ছে। তাদের স্বাস্থ্য ফিরিয়ে আনতে স্কুলে ড্রিল ক্লাস বাধ্যতামূলক করেন তিনি। কিন্তু ড্রিল ক্লাসের প্রতি ছাত্রদের খুব একটা আগ্রহী হতে দেখা যায়না। বিভিন্ন উপায়ে প্রোজেক্টকে বাতিল করার চেষ্টায় থাকে স্কুলের সবাই। এক্ষেত্রে একমাত্র ব্যাতিক্রম রতন। নিজের স্বাস্থ্য ফিরিয়ে আনতে ড্রিল টিচার কুদ্দুস স্যারের সাথে যোগ দেয় সে এবং আস্তে আস্তে দলও ভারি করতে থাকে রতন। অন্যদিকে লাবু, আতিক, মনিরসহ অন্যরা ড্রিল ক্লাসের ঘোর বিরোধী। একপর্যায়ে মুখোমুখী হয়ে যায় দুই গ্র“প। লাবুদের ফাঁদে পা দিয়ে রতনদের ড্রিল প্রোজেক্ট প্রায় বাতিলই হয়ে যাচ্ছিল, ঠিক তখন দৃশ্যপটে আসে খোকন। বাবার বদলির কারণে শহর থেকে মফস্বলের গকুলনগর উচ্চ বিদ্যালয়ে এসে ভর্তি হয় সে। শহর থেকে এসেছে বলে খোকনের নাম হয় সিটি থোকন। ড্রিল ক্লাস নিয়ে একেবারে কোনঠাসা হওয়া রতনের পক্ষ নেয় সে। এভাবে শিক্ষক এবং ছাত্রদের মধ্যে বিভিন্ন নাটকীয় ঘটনার মধ্য দিয়ে কাহিনী এগিয়ে যায়, যা একদিকে হাস্যরসের সৃস্টি করে অন্যদিকে কিশোরদের জন্য শিক্ষণীয় বিষয় উঠে আসে পিটি রতন সিটি খোকন নাটকে।

পিটি রতন সিটি খোকন সম্পর্কে নাট্যকার পলাশ মাহবুব বলেন, আমাদের বিশেষ দিবসগুলো আসে-যায়। বর্ণাঢ্য নানান অনুষ্ঠান হয় টিভি পর্দায়। কিন্তু শিশু-কিশোরদের জন্য আলাদাভাবে কোনও আয়োজন থাকে না। বিষয়টি মাথায় রেখে এবার আমরা কিশোরদের জন্য বিনোদনমূলক এই নাটকটি নির্মাণ করেছি। আশাকরছি, শিশু-কিশোররাসহ সবাই নাটকটি উপভোগ করবেন।

পলাশ মাহবুবের রচনায় নাটকটি পরিচালনা করেছেন লিটু সোলায়মান। চিত্রগ্রহণ করছেন সানি ডি রোজারিও। বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন আমিরুল ইসলাম চৌধুরী, হাসান মাসুদ, মনিরা মিঠু, মাজনুন মিজান, আনোয়ার শাহী, মাহমুদা মলি। এছাড়া নাটকটিতে আরও অভিনয় করেছে গকুলনগর উচ্চ বিদ্যালয়ের একদল শিক্ষার্থী। শিক্ষার্থীদের মধ্যে চারজন অভিনয় করছে নাটকের গুরুত্বপূর্ণ চারটি চরিত্রে। ৩০০ ছাত্রের মধ্যে অডিশনের মাধ্যমে চারজনকে নির্বাচিত করা হয়। ব্যবস্থাপনা সহকারীর দায়িত্বে ছিলেন লেলিন মৃধা। চিত্রগ্রহণ সহকারী ফারুক আহমেদ ও মতিন খান। সহকারী পরিচালকের দায়িত্ব পালন করেছেন আব্দুল্লাহ আল মামুন।

পিটি রতন সিটি খোকন’ ধারাবাহিকটি আসছে ঈদে বৈশাখী টেলিভিশনে প্রচারিত হবে। প্রথম দিন থেকে ষষ্ঠ দিন পর্যন্ত বিকেল ৫টা ১৫ মিনিটে।

Check Also

marumos-story

এনটিভিতে বাংলায় ভাষান্তরিত জাপানি ধারাবাহিক

মিডিয়া খবর :- বাংলাদেশ ও জাপানের মধ্যে সাংস্কৃতিক বন্ধন আরো দৃঢ় করতে ঢাকাস্থ জাপানি দূতাবাসের …

nil-josna

শনিবার থেকে বিটিভিতে নীল জোছনা

মিডিয়া খবর :- আজ ২৪ ডিসেম্বর শনিবার সন্ধ্যা ৭টা থেকে বাংলাদেশ টেলিভিশনে দেখা যাবে কথাসাহিত্যিক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares