Home » মঞ্চ » আজ সমন্বিত সহযোগিতার দিন বিশ্ব নাট্যদিবস
paicho chorer kischa

আজ সমন্বিত সহযোগিতার দিন বিশ্ব নাট্যদিবস

Share Button

আজ বিশ্ব নাট্য দিবস। বিশ্বের সব নাট্যকর্মী ও শিল্পীর মধ্যে সৌহার্দ্য স্থাপন ও নাটকের শক্তিকে নতুন করে আবিষ্কার করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি, ইন্টারন্যাশনাল থিয়েটার ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ কেন্দ্র (আইটিআই), বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশন এবং বাংলাদেশ পথনাটক পরিষদের যৌথ উদ্যোগে প্রতি বছরের মতো এবারও বিশ্ব নাট্যদিবস উদযাপন করা হচ্ছে। দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপনের লক্ষ্যে বর্ণাঢ্য কর্মসূচি হাতে নেয়া হয়েছে। সর্বস্তরের নাট্যকর্মীর অংশগ্রহণে বিশ্ব নাট্যদিবসের অনুষ্ঠান প্রাণবন্ত করে তুলতে ব্যাপক প্রস্তুতি রয়েছে।

দিবসটি পালনের মূল লক্ষ্য হচ্ছে বিশ্বের সব দেশের নাট্যকর্মীদের মধ্যে ঐক্য স্থাপন, সম্প্র্রীতি, উদ্দীপনা সৃষ্টি এবং এর মাধ্যমে নাটকের উন্নয়ন সাধন করা বিভিন্ন দেশে বিদ্যমান ইন্টারন্যাশন্যাল থিয়েটার ইনস্টিটিউটের (আইটিআই) স্থানীয় কেন্দ্রগুলো প্রধানত এই দিবস পালনে কর্মসূচি গ্রহণ করে

ঢাকার  আইটিআই কেন্দ্রের উদ্যোগে ১৯৮০ সাল থেকে বাংলাদেশে ‘বিশ্ব নাট্য দিবস’ পালন শুরু হয়। ১৯৮৬ সালে বাংলাদেশে আইটিআই ও গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশানের যৌথ উদ্যোগে ‘বিশ্ব নাট্য দিবস’ পালনের ব্যপক কর্মসূচি পালনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তৎকালীন প্রেক্ষাপটে পাঁচ-ছয়শ’ নাট্যকর্মী রেজিস্ট্রেশনভুক্ত হয়ে ঢাকার ৫টি স্থানে পথনাটক, একই সঙ্গে মধ্যাহ্নভোজ এবং র‌্যালিতে অংশ নেয়। তাদের প্রত্যেকের পরিহিত পোশাক থাকত নাট্যকেন্দ্রিক। এ ধরনের  র‌্যালি আনন্দ উৎসবের সঙ্গে ঢাকার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করত। ১৯৮৯ থেকে এই দিবসটি পালনের বিষয়টিতে পুনরায় উৎসাহ লক্ষ্য করা গেছে। এ সময় উদ্যোক্তা হিসেবে যুক্ত হয় সম্পৃক্ত নাট্যদল। ১৯৯১ সাল থেকে আবার জমে উঠতে শুরু করে বিশ্ব নাট্য দিবসের আয়োজন। রাজধানী ঢাকায় নাট্যকর্মীদের সমাবেশ, আড্ডা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ নানাবিধ কর্মসূচির মাধ্যমে দৃষ্টি আকর্ষণ করে ‘বিশ্ব নাট্য দিবস’। এভাবেই প্রতি বছর এ দেশে পালিত হয়ে আসছে দিবসটি।

এ বছর বিশ্ব নাট্যদিবসের বাণী পাঠিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার কৃতী নাট্যকার, নির্দেশক ও ডিজাইনার ব্রেট বেইলি। আজ বিশ্ব নাট্যদিবসকে ঘিরে সব নাট্যকর্মী, শুভাকাঙ্ক্ষী ও শুভানুধ্যায়ীর অংশগ্রহণে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের শিখা চিরন্তন থেকে বিকাল সাড়ে ৪টায় একটি আনন্দ শোভাযাত্রা শুরু হয়ে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি চত্বরে এসে শেষ হবে। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক নাট্যরত্ন লিয়াকত আলী লাকীর সভাপতিত্বে আয়োজিত আসরে বিশ্ব নাট্যদিবসের বক্তব্য রাখবেন অধ্যাপক আফসার আহমেদ এবং শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখবেন দেশবরেণ্য বিশিষ্ট নাট্যব্যক্তিত্বরা। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বিশ্ব আইটিআই সভাপতি রামেন্দু মজুমদার।

এ বছর বিশ্ব নাট্যদিবস সম্মাননা-২০১৪ প্রদান করা হবে বরেণ্য শিক্ষাবিদ অধ্যাপক আনিসুজ্জামানকে। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় জমকালো সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশনায় অংশ নেবে বিভিন্ন থিয়েটার দলের নাট্যকর্মী। সাড়ে ৮টায় শিল্পকলার চিত্রকলা ভবনের ছাদে বসতে যাচ্ছে প্রীতি সম্মিলনী। বিশ্ব নাট্যদিবসের এবারের আয়োজন প্রসঙ্গে বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশানের সেক্রেটারি জেনারেল ঝুনা চৌধুরী বলেন, বিশ্ব নাট্যদিবস সারা পৃথিবীর সব নাট্যকর্মীর জন্য অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ দিন। প্রতি বছরের ন্যায় এবারও দিবসটিকে ঘিরে বর্ণাঢ্য কর্মসূচি হাতে নেয়া হয়েছে। আশা করছি নাট্যদিবসের আয়োজন গেল বছরগুলোর মতো বেশ উপভোগ্য হবে।

Check Also

paicho

হাসির নাটক পাইচো চোরের কিচ্ছার ৫০তম প্রদর্শনী

মিডিয়া খবর :- আগামী ১৭ ডিসেম্বর শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার মূল …

Abdul-Hadi

আব্দুল হাদির দেশের গান ‘সেই দেশেতে জন্ম আমার’

মিডিয়া খবর :- দেশের গান গাইলেন বাংলাদেশের সংগীতের কিংবদন্তী অসংখ্য জনপ্রিয় গানের শিল্পী আব্দুল হাদি। গানের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares