Home » অনুষ্ঠান » ‘গ্রামীণফোন আজকের সংবাদপত্র’ সাফল্যের দশম বর্ষে
grameen

‘গ্রামীণফোন আজকের সংবাদপত্র’ সাফল্যের দশম বর্ষে

Share Button

ঢাকা:-

হরেক টকশোর ভিড় ছাপিয়ে দর্শক টেলিভিশনের নব চেপে হাজির হন পর্দার সামনে কোন অনুষ্ঠানে- এমন প্রশ্নে সকল মতামত জরিপ, দর্শক ভোট, এসএমএস জরিপ- সব মাধ্যমেই শীর্ষে ‘গ্রামীণফোন আজকের সংবাদপত্র’। পত্রপত্রিকা নিয়ে এত আয়োজনের ভিড়ে তরতাজা খবরের মধ্যরাতের নতুন এই আয়োজনে প্রথমদিকে দর্শকরা হোঁচট খেলেও অল্প ক’দিনেই চাকা ঘুরতে থাকে। অগণিত দর্শক দিনের ঘটনাবলি আর বিশ্লেষকদের মনকাড়া সব মন্তব্য শুনেই ঘুমাতে যাওয়ার নতুন রুটিন তৈরি করে। দর্শকনন্দিত এই অনুষ্ঠানের সূচনা চ্যানেল আইতে হলেও ধীরে ধীরে অন্য চ্যানেলগুলোতেও একই রকমের অনুষ্ঠান যেন নৈমিত্তিক আয়োজনেরই অংশ। শুরুতে রাত ১২টায় প্রেস থেকে পত্রিকা নিয়ে তাৎক্ষণিক একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন সম্ভব কিনা- এমন প্রশ্ন ও সম্ভাব্যতা যাচাই চলেছিল খোদ আয়োজকদের মধ্যেই। প্রথম পরীক্ষামূলক অনুষ্ঠান প্রচারে মতিউর রহমান চৌধুরী সঙ্গী হিসেবে পেয়েছিলেন যুগান্তরের নির্বাহী সম্পাদক সাইফুল আলমকে। সেই থেকে শুরু। ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় এক নতুন যুগের সূচনা। অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা হয়েছিল অনেকটা নাটকীয়ভাবে। বিমানে বসে চ্যানেল আই’র কর্ণধার ফরিদুর রেজা সাগর ও মানবজমিন-এর প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরীর মধ্যে কথাচ্ছলে নানা উত্থান-পতন, অনুষ্ঠান করা যাবে কিনা? দর্শক দেখবে কিনা? পত্রিকা পাওয়া যাবে কিনা? এমন অগুনতি প্রশ্ন ছাপিয়ে অনুষ্ঠানটির সূচনা হয়েছিল ২০০৫-এর ৬ই আগস্ট। তার পরের কথা তো পাঠকদের জানাই আছে। দর্শকনন্দিত ‘গ্রামীণফোন আজকের সংবাদপত্র’ অনুষ্ঠান সফলতার সঙ্গে নবম বর্ষ অতিক্রম করে দশম বর্ষে পদার্পণ করেছে। তরতাজা খবরের টাটকা আয়োজন ‘গ্রামীণফোন আজকের সংবাদপত্র’। ২০০৫-এর ৬ই আগস্ট শুরু হওয়া সরাসরি প্রচার চলতি এ অনুষ্ঠানটি ইতিমধ্যে অর্জন করেছে ব্যাপক দর্শকপ্রিয়তা। দিনের প্রকাশিত পত্রিকার প্রথম সংস্করণের কপি নিয়ে রাত ১২টা ১ মিনিটে চ্যানেল আই’র ভিন্নধর্মী আয়োজন ‘গ্রামীণফোন আজকের সংবাদপত্র’ ঘুম কেড়ে নেয় অগণিত দর্শকের। রাতের আয়োজনে দেশে তো বটেই, দেশের বাইরের প্রবাসী দর্শকরা অনেক আগে পত্রিকা না পেয়েও জেনে যাচ্ছেন দিনের আলোচিত ঘটনাবলি ও প্রকাশিত সংবাদের বিশ্লেষণ। ‘গ্রামীণফোন আজকের সংবাদপত্র’ প্রথম প্রহরে শুরু হওয়া অন্য টিভি অনুষ্ঠানগুলোর পাইওনিয়ার। এ অনুষ্ঠান সূচনার পর থেকেই টেলিভিশনে নানা মাত্রার সংবাদভিত্তিক অনুষ্ঠানের সূচনা। জাতীয় ও আন্তর্জাতিক অঙ্গনের গুরুত্ব বিশ্লেষণে শুধু যে সাংবাদিক ও সম্পাদকরাই অনুষ্ঠানে অংশ নিচ্ছেন তা নয়, থাকছেন বিষয় সংশ্লিষ্ট খ্যাতিমান ব্যক্তিবর্গ ও বিশেষজ্ঞ বক্তারাও। অনেক সময় ঘটনার বিশ্লেষণে সরাসরি স্টুডিওতে উপস্থিত থাকছেন ঘটনার সঙ্গে সম্পর্কিত ব্যক্তিবর্গও। গত নয় বছরে অনুষ্ঠানে বিশিষ্টজনদের মধ্যে ছিলেন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক শিল্প ও বাণিজ্য উপদেষ্টা ড. হোসেন জিল্লুর, সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমদ বীর বিক্রম, সংবিধান প্রণেতা ড. কামাল হোসেন, সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার বিচারপতি এম এ রউফ, অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ, সাবেক উপদেষ্টা সি এম শফি সামী, সাবেক উপদেষ্টা হাফিজ উদ্দিন আহমদ, সাবেক উপদেষ্টা সুলতানা কামাল, প্রয়াত প্রথিতযশা সাংবাদিক এবিএম মূসা ও ইন্ডিপেন্ডেন্টের সাবেক সম্পাদক ও সাবেক উপদেষ্টা মাহবুবুল আলম, সাবেক পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আবুল হাসান চৌধুরী, দার্শনিক ও চিন্তাবিদ ফরহাদ মজহার, সাবেক জ্বালানি উপদেষ্টা মাহমুদুর রহমান, প্রয়াত বিচারপতি ও নির্বাচন কমিশনার নাঈম উদ্দিন আহমেদ, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা প্রয়াত মেজর জেনারেল (অব.) মঈনুল হোসেন চৌধুরী, মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্‌রাহীম বীর বিক্রম, কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীর বিক্রম, নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার (অব.) সাখাওয়াত হোসেন, সিনিয়র আইনজীবী ব্যারিস্টার রফিক-উল হক, প্রয়াত সংবিধান বিশেষজ্ঞ ড. এম জহির, প্রধান তথ্য কমিশনার ড. মুহাম্মদ জমির, অর্থনীতিবিদ ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য, ড. আবুল বারকাত, ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ, ড. পিয়াস করিম, বিজিএমইএ’র সাবেক সভাপতি সালাম মুর্শেদী, সাবেক সভাপতি কুতুবউদ্দিন ও এফবিসিসিআই’র সাবেক সভাপতি মীর নাসির হোসেন, আনিসুল হক, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ, প্রফেসর দিলারা চৌধুরী, ভয়েস অব আমেরিকার ওয়াশিংটন প্রতিনিধি রোকেয়া হায়দার। বিশিষ্ট সাংবাদিক ও মানবজমিন প্রধান সম্পাদক মতিউর রহমান চৌধুরীর উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে খ্যাতনামা সাংবাদিক ও সম্পাদকদের মধ্যে নিয়মিত অংশ নিয়েছেন ইত্তেফাকের সাবেক সম্পাদক ও মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু, ডেইলি স্টার সম্পাদক মাহফুজ আনাম, সমকাল সম্পাদক গোলাম সারওয়ার, প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমান, কালের কণ্ঠের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ইমদাদুল হক মিলন, কালের কণ্ঠের সাবেক সম্পাদক আবেদ খান, সাবেক সচিব ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক এম. আসাফউদ্দৌলাহ, নিউজ টুডে সম্পাদক রিয়াজউদ্দিন আহমদ, সংবাদ সম্পাদক প্রয়াত বজলুর রহমান, ফিন্যান্সিয়াল এক্সপ্রেস সম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন, অবজারভারের সম্পাদক ইকবাল সোবহান চৌধুরী, আমাদের অর্থনীতি সম্পাদক নাঈমুল ইসলাম খান, বাংলাদেশ প্রতিদিনের সম্পাদক নঈম নিজাম, জনকণ্ঠের নির্বাহী সম্পাদক প্রয়াত বোরহান আহমেদ, ডেইলি স্টারের ব্যবস্থাপনা সম্পাদক ও সাবেক প্রধান উপদেষ্টা ড. ফখরুদ্দীন আহমদের প্রেস সচিব সৈয়দ ফাহিম মুন এম, বৈশাখী টেলিভিশনের নির্বাহী মনজুরুল আহসান বুলবুল, নিউএজ সম্পাদক নূরুল কবীর, বিশিষ্ট সাংবাদিক শফিক রেহমান, ইকোনমিক টাইম সম্পাদক ও প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি শওকত মাহমুদ, ভোরের কাগজ সম্পাদক শ্যামল দত্ত, সিনিয়র সাংবাদিক আমীর খসরু, বিলুপ্ত হয়ে যাওয়া আজকের কাগজের নির্বাহী সম্পাদক কাজী নাবিল আহমদ, নয়া দিগন্ত সম্পাদক আলমগীর মহিউদ্দিন, সকালের খবর সম্পাদক মোজাম্মেল হোসেন ও যুগান্তরের নির্বাহী সম্পাদক সাইফুল আলম, দৈনিক সমকালের উপসম্পাদক রাশিদুন্নবী বাবু, সাংবাদিক সানাউল্লাহ লাবলু, বিডিনিউজ২৪ ডটকম-এর প্রধান সম্পাদক তৌফিক ইমরোজ খালিদী, সাপ্তাহিক সম্পাদক গোলাম মোর্তোজা, কলামনিস্ট ও আন্তর্জাতিক বিষয়ের বিশ্লেষক জগলুল আহমেদ চৌধূরী, সিনিয়র সাংবাদিক মাহফুজ উল্লাহ, আরশাদ মাহমুদ, নাদীম কাদির, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন, ড. সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম, ড. আসিফ নজরুল, রুবাইয়াত ফেরদৌস, বাংলাদেশ প্রতিদিনের নির্বাহী সম্পাদক পীর হাবিবুর রহমান, ইত্তেফাকের সিনিয়র সাংবাদিক মনির হায়দার, আশরাফ কায়সারসহ অনেক খ্যাতনামা সম্পাদক ও সিনিয়র সাংবাদিক। গ্রামীণফোনের সহযোগিতায় চ্যানেল আই’র নিয়মিত আয়োজন ‘গ্রামীণফোন আজকের সংবাদপত্র’ প্রতিদিন রাত ১২টা ১ মিনিটে শুরু হয়ে চলে ১২টা ১৫ মিনিট পর্যন্ত। অনুষ্ঠানটি সরাসরি সমপ্রচার হয়। অনুষ্ঠানটি প্রযোজনা করছেন কাজল ঘোষ।

(কৃতজ্ঞতা স্বীকার – দৈনিক মানব জমিন)

Check Also

lucky-akhand

কাঁদালেন লাকী আখন্দ

মিডিয়া খবর :- মিলনায়তনভর্তি দর্শক, সেখানে তখন অন্য রকম পরিবেশ। তারকার মিলনমেলা বললেও ভুল হবে …

noren

বাকশিল্পাচার্য নরেন বিশ্বাস জয়ন্তী উদ্যাপন

মিডিয়া খবর:- গত ১৬ই নভেম্বর ২০১৬ বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ছ’টায় সঙ্গীত, আবৃত্তি ও নৃত্যকলা কেন্দ্র …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares