Home » ইভেন্ট » বেরিয়ে গেল এলআরবি
bachchu

বেরিয়ে গেল এলআরবি

Share Button

ঢাকা:- দেশের অন্যতম জনপ্রিয় ব্যান্ড দল এলআরবির সদস্যরা বাংলাদেশ মিউজিক্যাল ব্যান্ড অ্যাসোসিয়েশন (বামবা) থেকে নিজেদের সদস্যপদ প্রত্যাহার করে নিলেন ।

বামবা থেকে নিজেদের সদস্যপদ প্রত্যাহার করার বিষয়টি জানিয়ে ১৪ মার্চ শুক্রবার এলআরবির দল প্রধান আইয়ুব বাচ্চু তাঁর ফেসবুক পাতায় একটি চিঠি পোস্ট করেছেন। চিঠিটি লেখা হয়েছে এলআরবির নিজস্ব প্যাডে।
চিঠিতে লেখা হয়েছে, ‘১৪ মার্চ থেকে আমরা এলআরবি ব্যান্ডের সদস্যরা চিরতরে বামবা থেকে নিজেদের সদস্যপদ প্রত্যাহার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। অনিবার্য কিছু কারণ ও অমীমাংসিত একাধিক বিষয়ের পরিপ্রেক্ষিতে বামবা থেকে নিজেদের সদস্যপদ প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমরা।’

চিঠিতে আরও লেখা হয়েছে, ‘আমরা চিরতরের জন্য বামবা থেকে নিজেদের দূরে সরিয়ে নিচ্ছি। নিঃসন্দেহে বামবার সব সদস্যের সঙ্গে দারুণ সময় কাটিয়েছি আমরা। বামবার সঙ্গে আমাদের যাত্রাটা ছিল অসাধারণ। আশা করছি, বিশ্বের কোথাও না কোথাও আপনাদের সঙ্গে দেখা হবে। বিদায় আজ থেকে।’
চিঠির শেষ অংশে এলআরবির পক্ষে নিজের স্বাক্ষরও দিয়েছেন আইয়ুব বাচ্চু।

সম্প্রতি কথা থাকলেও ‘বিসিবি সেলিব্রেশন কনসার্ট’-এ অংশ নিতে পারেনি বাংলাদেশের জনপ্রিয় ব্যান্ড মাইলস। মাইলসের দাবি, এর জন্য দায়ী এলআরবি ব্যান্ডের আইয়ুব বাচ্চু। এ বিষয়ে সরাসরি এলআরবি ও বাচ্চুকে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে দায়ী করে স্ট্যাটাস দেন মাইলসের হামিন আহমেদ।

এদিকে আইয়ুব বাচ্চুর এলআরবি যখন মঞ্চে ওঠে, তখন দর্শক-শ্রোতারা মোটেই মনোযোগী ছিলেন না। কেউ ছবি তোলা, কেউবা কথা বলাবলি ও এ আর রহমানের প্রতীক্ষায় অস্থির ছিলেন। বাচ্চুর গানে কেউ কণ্ঠই মেলাননি, যা এলআরবির ইতিহাসে বিরল। ওই সময় আইয়ুব বাচ্চুকে একরকম বিব্রত হয়েই ৬টি গান গাইতে হয়। এক সময় অভিমানের সুরে আইয়ুব বাচ্চু বলে ওঠেন, ‘আপনারা যারা কষ্ট করে বাংলাগান শুনছেন তাদের অনেক ধন্যবাদ। আপনাদের হাত না চলুক, চোখ আর কান তো খোলা আছে- এতেই চলবে, হাততালি এখন খরচ করে লাভ নেই, এটা পরের জন্য রেখে দিন, চোখ কান খোলা আছে এটাই যথেষ্ট। আপনারা ধৈর্য ধরে বাংলাগান শুনছেন, সেজন্য অনেক ধন্যবাদ সবাইকে।’ অনুষ্ঠানটিতে উপ-মহাদেশের বরেণ্য সঙ্গীতজ্ঞ এ আর রহমান ও বিশ্বখ্যাত গায়ক অ্যাকনের পাশাপাশি গান গাওয়ার কথা ছিল বাংলাদেশের ব্যান্ড সোলস, অর্ণব অ্যান্ড ফ্রেন্ডস, মাইলস এবং এলআরবির। কিন্তু মাইলস আয়োজনটিতে উপস্থিত হয়েও কনসার্টে অংশ না নিয়েই চলে যায়।

বিসিবির কর্মকর্তার মতে, কনসার্টে প্রতিটি ব্যান্ডের জন্য সময় বরাদ্দ ছিল ২০ মিনিট করে। এলআরবি সেখানে একাই ৩৮ মিনিটে ৬টি গান পরিবেশন করেন। তাদের মতো সোলস, অর্ণব অ্যান্ড ফ্রেন্ডসের সদস্যরাও গান গাইতে মঞ্চে উঠে দর্শকদের সাড়া পাননি।

Check Also

khilkhil kazia

খিলখিল কাজীর আবৃত্তি ও সঙ্গীতসন্ধ্যা আজ

মিডিয়া খবর :- ইন্দিরা গান্ধী সাংস্কৃতিক কেন্দ্র (আইজিসিসি) আজ শুক্রবার কাজী নজরুল ইসলামের ১১৭তম জন্মজয়ন্তী …

ganmela

সংগীতশিল্পী সোসাইটির সংগীতমেলা ২০১৬

মিডিয়া খবর:- আজ ২৩ এপ্রিল বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি মাঠে সম্মিলিত সংগীতশিল্পী সোসাইটির উদ্যোগে শুরু হচ্ছে ‘সংগীতমেলা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares