Home » ইভেন্ট » ব্যান্ড শিল্পীদের পলিটিক্স
shafeen

ব্যান্ড শিল্পীদের পলিটিক্স

Share Button

শিডিউল অনুযায়ী টি-২০ বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সবাই পারফর্ম করলেও বাংলাদেশের টপ ক্লাস ব্যান্ড দল মাইলস পারেনি। কেন পারেনি? কী কারণে পারেনি? সে বিষয়ে মাইলস-এর শাফিন আহমেদ নিজেই ফেসবুকে তার অভিমত প্রকাশ করেছে।

শুক্রবার ফেসবুকে প্রকাশিত ভিডিও ক্লিপসে শাফিন আহমেদ বলেন, “আজকে সুন্দর একটা দিন কাটলো। আইসিসি টি-২০ বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ছিলো। অনেক প্রস্তুতি। আশা ছিলো, মানুষের মধ্যে যে বড় কিছু হতে যাচ্ছে।

আমরা অনেক দিন ধরে পারফর্ম করার জন্য প্রস্তুতি নিয়েছিলাম। খুব কষ্ট করে, সময় দিয়ে। তারপরও পারফর্ম করা হল না।

কেন হলো না? এটা রহস্য। তবে আমাদের জন্য বুঝতে খুব বেশি কঠিন না যে, এর সূত্র কোথায়!

সকালে আমরা সাউন্ড চেক করতে গিয়েছিলাম। সেখানে উপস্থিত ইঞ্জিনিয়াররা আমাদের প্রস্তুতি দেখলো এবং শিডিউল অনুযায়ী অর্ণব, সোলস, মাইলস তারপর এলআরবিকে ঠিক করা হলো। এর আয়োজক ছিলো গ্রে। তারাও এই ব্যাপারে অনড় ছিলো।

পরে সন্ধ্যায় যথাসময় আমরা উপস্থিত হই। পরে সোলস পারফর্ম শেষ করে নামলো। আমাদের ওঠার কথা। কিন্তু তাৎক্ষণিকভাবে দেখা গেলো, আমাদের জায়গায় এলআরবি’কে মঞ্চে ওঠানো হলো। তখনো আমরা বুঝতে পারিনি কী হতে চলেছে।

আমরা ভেবেছিলাম, এরপর আমরা পারফর্ম করবো। এ জন্য আমরা হাতে গিটার নিয়ে প্রস্তুত ছিলাম। কিন্তু যে ঘটনা ঘটলো সেটা অপ্রত্যাশিত। একটা ইন্টারন্যাশনাল ব্যান্ডের সাথে এ রকম আগে কখনো ঘটেনি। এলআরবি বাকি সময়টা পারফর্ম করলো, শুধু তারাই বাজালো। একটি ব্যান্ডের সময় ছিল ২০ মিনিট করে।

আর এই ২০ মিনিটের জন্য আমাদের প্রস্তুতি ছিল চমৎকার। যা দর্শকরা দেখলে সত্যিই আনন্দ পেতো।

কিন্তু এলআরবি’কে গ্রে থেকে বলা হলো, ‘আপনি বাকি সময়টাও পারফর্ম করবেন।’ এ সময় আমাদেরকে সম্পূর্ণভাবে ইগনোর করা হয়। আমরা পাশে দাঁড়িয়ে দেখি। পরে এনাউন্স শুনলাম এই পর্ব এখানেই শেষ।

পরে গ্রে’র সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বললাম, কিন্তু সিনিয়ার কেউ আসেনি। সকলে আমাদের এড়িয়ে গেলো এবং কোনো উপযুক্ত উত্তর দিতে পারলো না যে, কেনো মাইলস’কে ডেকে এনে পারফর্ম করতে দেয়া হলো না। এ জিনিসটা অত্যন্ত অপমানজনক এবং আমাদের ইতিহাসে এটাই প্রথম।

সুতারাং গ্রে’র কাছে আমার প্রশ্ন থাকবে, এর একটা যথাযথ ব্যাখ্য আমরা জানতে চাই। ভিতরের কথা আমরা জানতে চাই।

সকাল থেকেই বুঝেছিলাম এলআরবি এবং গ্রে’র একটা সম্পর্ক আছে। আর সেটা সন্ধ্যা বেলায় প্রকাশ পেলো।

পরে আমরা মাঠ ছেঁড়ে চলে আসি। কিন্তু এই রকম একটা ইন্টারন্যাশনাল অনুষ্ঠানে যেখানে এতগুলো দেশ পারফর্ম করছে, সেখানে আমরা পারলাম না। আমাদেরকে বাদ দেওয়া হলো।

এই অনুষ্ঠানটি আইসিসির উদ্যোগে বিসিবি করে। এর আগেও হয়েছে। তবে বিসিবির এই আয়োজন প্রতিবার চলে যায় ইন্ডিয়ান ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানির হাতে। আর তখনই প্রচুর টাকা দিয়ে ইন্ডিয়ান শিল্পীদের নিয়ে আসা হয়।

আমরা দেশের টপ ক্লাস ব্যান্ড তারকা হওয়া শর্তেও খুবই নগ্নভাবে এইসব অনুষ্ঠানে আমাদের উপস্থাপন করা হয়। কিন্তু আমরা যেভাবে আনন্দ দিতে পারবো বা এতোদিন পেরেছি, তা কেউ পারবে না। তবুও প্রতিবার দেশের বাইরের শিল্পীদের বহু টাকা দিয়ে আনা হচ্ছে। আমাদের হিন্দি গান শোনানো হচ্ছে। বাংলাদেশের মানুষ এ ধরণের ভালগার ড্যান্স চায় না, চায় সামাজিকতা।
ঠিক এই রকম এনভায়রমেন্টে যদি বলা হত মাইলসকে পারফর্ম করতে, তাহলে আপনি চিন্তা করে দেখেন আমরা কী করতে পারতাম। কিন্তু আমরা এই সুযোগ পাচ্ছি না।

সুতরাং আমাদের শিল্পীদের থেকে বাইরের শিল্পীদের আমরাই তুলে ধরছি এবং সবচেয়ে বড় বিষয় আমাদের দেশের ব্যান্ড শিল্পীদের পলিটিক্স। এই মানসিকতা থেকে বের হয়ে আসতে হবে। পলিটিক্স বা গেম প্লে করে অন্যদের বঞ্চিত করাটাই খারাপ। এই পলিটিক্স বন্ধ করতে হবে। তাই সব শিল্পীদের বলছি, চোখ খোলা রাখুন।

(from online news portal – poriborton .com)

 

Check Also

Habib-Mitthe-noy

হাবিবের নতুন গান মিথ্যে নয়

মিডিয়া খবর:- নতুন গান নিয়ে শ্রোতাদের সামনে হাজির হচ্ছেন দেশের জনপ্রিয় সংগীত পরিচালক ও গায়ক …

Nisho-Urmila

নিশো ঊর্মিলার মিউজিক ভিডিও তুমি দিন তুমি রাত

মিডিয়া খবর :- তুমি দিন, তুমি রাত, তুমি যে প্রভাত, তুমি মন নিলে কখন, বাড়িয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares