Home » টিভি চ্যানেল » দৃপ্ত পায়ে দীপ্ত টিভি
shultan suleman

দৃপ্ত পায়ে দীপ্ত টিভি

Share Button

মিডিয়া খবর:-      :- কাজী শিলা -:

এসেই সব টিভি চ্যানেলকে পেছনে ফেলে টিআরপি রেটিং-এ দশর্ক জনপ্রিয়তার দিক থেকে প্রথমদিকে অবস্থান তৈরী করে নিয়েছে দীপ্ত টিভি। এ যেন এলেন দেখলেন আর জয় করে নিলেন।

বাংলাদেশে তিনটি রাষ্ট্রীয় টিভিসহ সর্বমোট ২৭ টি চ্যানেল নিয়মিত তাদের অনুষ্ঠান সম্প্রচার করছে। বেসরকারী চ্যানেলগুলির মধ্যে ৫ টি খবর এবং ১৮ টি বিনোদন ও ১ টি গানের চ্যানেল। সকল চ্যানেলই যাত্রা শুরু করেছিল দর্শককে সুস্থ ও দেশীয় সংস্কৃতির মাধ্যমে বিনোদন দেয়ার উদ্দেশ্যে। তবে সম্প্রচারে এসেই দর্শক হৃদয় জয় করে নিয়েছে বলা যায় প্রত্যাশার সলতেয় তেল দিল সর্বশেষ প্রচারে আসা চ্যানেল দীপ্ত টিভি। 

১৮ নভেম্বর ২০১৫ দীপ্ত টিভি যাত্রা শুরু করে। মাত্র দুই মাসেই জনপ্রিয়তার শীর্ষে উঠে এসেছে বিনোদনমূলক বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল ‘দীপ্তটিভি’। বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান প্রচারের মধ্য দিয়ে ভারতের চ্যানেলমুখী দশর্কদের দেশীয় টিভিতে ফিরিয়ে আনার চেষ্টার ব্রত নিয়ে যাত্রা শুরু করে দীপ্ত। যাত্রার শুরুতেই তাদের সাফল্য ঈর্ষনীয়। ভারতীয় চ্যানেলের অনেক দর্শক এখন এই চ্যানেলে আটকে গেছে।

দীপ্ত টিভিতে প্রচারিত বাংলা ভাষায় ডাবিং করা মেগা বিদেশী ধারাবাহিক ‘সুলতান সুলেমান’ বাংলাদেশে এখন সবচে’ জনপ্রিয় সিরিয়াল। টিআরপি রেটিং তথ্য অনুযায়ী চলতি বছরের প্রথম সপ্তাহে ২ জানুয়ারি থেকে ৮ জানুয়ারি পর্যন্ত রেটিংয়ের হিসেবে বিদেশি ধারাবাহিক ‘সুলতান সুলেমান চলার সময়ে দীপ্ত টিভি যেকোনো চ্যানেলের থেকে এগিয়ে আছে।

তুরস্কের অটোমান সাম্রাজ্যের দশম এবং সবচেয়ে দীর্ঘকালব্যাপী শাসনরত সুলতান সুলেমানের শাসনকাল ছিল এই সাম্রাজ্যের স্বর্ণযুগ। পাশ্চাত্ত্যে তিনি মহৎ সুলাইমান হিসেবে পরিচিত। তুর্কি ভাষায় নির্মিত সুলতান সুলেমান মেগা সিরিয়ালে দেখা যাবে- এ সময়ের ক্ষমতার টানাপোড়েন আর অটোমান সাম্রাজ্যের ষড়যন্ত্র, গুপ্তহত্যা, ভাই হত্যা, সন্তান হত্যা ও দাস প্রথার কাহিনী।

আরো আছে – সুলতানকে প্রেমের জালে আবদ্ধ করে, এক সাধারণ দাসীর সম্রাজ্ঞী হয়ে উঠার কাহিনী। যার প্রতিদ্বন্দী ছিল সুলেমানের প্রথম প্রেম মাহিদেভ্রান সুলতান, মা আয়েশা হাফসা সুলতানা, বাল্যবন্ধু পরবর্তীতে প্রধান উজির ইব্রাহিম পাশা।

তিন তিনটি মেগা সিরিয়াল সপ্তাহে ছয় দিন প্রচার করছে দীপ্ত। আশাপূর্ণা দেবীর উপন্যাস বালুচরী অনুসরণে তৈরী হয়েছে ‘অপরাজিতা’। অপরাজিতায় রয়েছে জীবন যুদ্ধে অবতীর্ণ এক নারীর অভিযানের কাহিনী।  অপর ধারাবাহিক ’পালকী’, যেখানে এক সাধারন নারীর অসাাধারন হয়ে ওঠার গল্প। আর ‘খুঁজে ফিরি তাকে’ সমাজের উচ্চবিত্ত পরিবারের আত্মঅহমিকা, প্রতিশোধ পরায়নতার গল্প। সপ্তাহের ছয় দিন ঠিক ঠিক নির্দিষ্ট সময়ে সিরিজগুলি প্রচার করায় দর্শকরা এটি উপভোগ করতে পারছেন সহজেই। প্রচারে সময়ানুবর্তিতা এবং বিজ্ঞাপনের অতিরিক্ত প্রভাব মুক্ত রাখাতে সিরিয়ালগুলি ধীরে ধীরে দর্শকের মন জয় করে নিচ্ছে। ঘরবিমুখী দর্শক দেশীয় টিভি সিরিয়ালের প্রতি আসক্ত হয়ে পড়ছে।

তাছাড়াও রয়েছে বাংলায় ডাবিং করা ছোটদের জন্য প্রিয় বেনটেন আর দ্য পাওয়ার পাফ গার্লস এবং রয়েছে দীপ্ত সংবাদ, টক শো ও গানের অনুষ্ঠান।

দীপ্ত টেলিভিশন পরিপূর্ণভাবে প্রচারে আসতে অনেকখানি সময় নিয়েছে। প্রচারে আসার আগে নানা আলোচনা সমালোচনার ঝড় উঠেছে। কেউ উন্নাসিকতা দেখিয়েছে কেউবা আবার অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করেছে। কেউ কেউ ভেবেছে দেখি না দীপ্ত টিভি দর্শকদের জন্য নতুন কি চমক নিয়ে আসে। সব জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে দীপ্ত দৃপ্ত পায়ে এগিয়ে চলেছে, আশা জাগিয়েছে।  শুভকামনা দীপ্ত টিভির জন্য।

 

Check Also

tv chanel

বিভিন্ন চ্যানেলে বিরতিহীন অনুষ্ঠান

মিডিয়া খবর:- অনুষ্ঠানের থেকে বিজ্ঞাপনের বহর বেশি। দর্শক অতিষ্ঠ বিজ্ঞাপন যন্ত্রণায়। ঈদের সময়তো কথাই নেই। …

ঘরে ফিরলেন মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল এবং জ. ই. মামুন

মিডিয়া খবর:- রোববার আনুষ্ঠানিকভাবে ঘরে ফিরলেন মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল এবং জ. ই. মামুন। এটিএন বাংলার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares