Home » চলচ্চিত্র » চলচ্চিত্রের পথিকৃৎ আব্দুল জব্বার খান
abdul jabbar khan

চলচ্চিত্রের পথিকৃৎ আব্দুল জব্বার খান

Share Button

মিডিয়া খবর:-

বাংলাদেশের প্রথম সবাক চলচ্চিত্র ‘মুখ ও মুখোশ’ এর পরিচালক আব্দুল জব্বার খান ১৯৯৩ সালের ২৮ ডিসেম্বর ঢাকায় মৃতুবরণ করেন। বাংলা চলচ্চিত্রের এ পথপ্রদর্শক একাধারে অভিনেতা ও চিত্রনাট্যকারও ছিলেন। পথিকৃৎ পরিচালক আব্দুল জব্বার খানের ২২ তম প্রয়াণ দিবস উপলক্ষ্যে এক আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। আগামী ২৯ ডিসেম্বর সেই মহান ব্যক্তিত্ত্বের ২২ তম প্রয়াণ দিবস। সেই ইতিহাস দ্রষ্টাকে স্মরণ করার লক্ষ্যে আব্দুল জব্বার খানের পরিবারের পক্ষ থেকে এক অনাড়ম্বর আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে আগামী ২৮ ডিসেম্বর ২০১৫ সোমবার বিকেল ৫টায়। এফডিসি’র ডিজিটাল ভবনের ফজলুল হক স্মৃতি মিলনায়তনে।

আমাদের দেশের প্রথম পূর্ণাঙ্গ সবাক চলচ্চিত্রের সফল নির্মাতা আব্দুল জব্বার খান (১৯১৬-১৯৯৩)। যাঁর হাত ধরে আমাদের এই ভ’খন্ডে চলচ্চিত্র শিল্পের সূচনা হয়েছিল আজ থেকে ষাট বছর আগে ‘মুখ ও মুখোশ’ (১৯৫৬) নির্মাণ ও মুক্তির মধ্য
দিয়ে, আর সেই চলচ্চিত্রই এ’দেশে চলচ্চিত্র শিল্পের বিকাশে সহায়ক ভুমিকা রাখতে সক্ষম হয়েছিল; উন্মোচিত করেছিল নতুন এক সম্ভাবনার দিগন্ত।  এরপর জোয়ার এলো’ (১৯৬২), উর্দূতে ‘নাচ ঘর’ (১৯৬৩), ‘বাশঁরী’ (১৯৬৮), ‘কাচঁ কাটা হীরা’ (১৯৭০), ‘খেলাঘর’ (১৯৭৩) প্রভৃতি চলচ্চিত্র পরিচালনা করেন।

১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় আব্দুল জব্বার খান মুজিবনগর সরকারের চলচ্চিত্র প্রদর্শন ও পরিবেশনার সঙ্গেও জড়িত ছিলেন। তিনি স্বাধীন বাংলাদেশে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার জুরি বোর্ড, অনুদান কমিটি, সেন্সর বোর্ড, ফিল্ম ইনস্টিটিউট ও আর্কাইভে সদস্য হিসেবে কাজ করেছেন। ষাট দশকের প্রথম ভাগে গঠিত পাকিস্তান পরিচালক সমিতির অন্যতম সংগঠক তিনি। 

Check Also

rawnak-hasan

রওনক হাসানের খারাপ মেয়ে ভালো মেয়ে

মিডিয়া খবর :- মঙ্গলবার থেকে নিজের প্রথম স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের কাজ শুরু করেছেন অভিনেতা ও নির্মাতা …

dhaka international film festival

পঞ্চদশ ঢাকা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব

মিডিয়া খবর :- ‘নান্দনিক চলচ্চিত্র, মননশীল দর্শক, আলোকিত সমাজ’ স্লোগান নিয়ে বৃহস্পতিবার থেকে রাজধানীতে শুরু …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares