Home » নিউজ » ওয়াসফিয়ার সেভেন সামিটস অভিযান পূর্ণ হলো
wazfia

ওয়াসফিয়ার সেভেন সামিটস অভিযান পূর্ণ হলো

Share Button

মিডিয়া খবর:-

‘সেভেন সামিটস’ অভিযান পূর্ণ করার পথে দুর্গম ‘মেসনার’ রুট হয়ে ওশেনিয়া অঞ্চলের সর্বোচ্চ শৃঙ্গ কারস্তেনস পিরামিডে পৌঁছেন অভিযাত্রী ওয়াসফিয়া নাজরীন। প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে বিশ্বের সাত অঞ্চলের সর্বোচ্চ সাত পর্বত শৃঙ্গ জয় করেছেন তিনি।
ওয়াসফিয়ার ফেসবুক পৃষ্ঠায় এক পোস্টে এ কথা জানানো হয়।
 
ইন্দোনেশিয়ার পাপুয়া প্রভিন্সে কারস্তেনস পর্বতমালায় ৪ হাজার ৮৮৪ মিটার উঁচু এ শৃঙ্গ স্থানীয়ভাবে পুঞ্চাক জায়া নামেও পরিচিত।
বাংলাদেশ অন সেভেন সামিটস ফাউন্ডেশনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ১৮ নভেম্বর সকাল ১০টা ১৯ মিনিটে ওই শৃঙ্গে পৌঁছেন ওয়াসফিয়া। ইন্দোনেশিয়ান বন্ধু জশুয়া নোয়া এ অভিযানে তার সঙ্গে ছিলেন।
ফাউন্ডেশনের মুখপাত্র করভি রাকসান্ড ফেসবুকে লিখেছেন, স্যাটেলাইট ফোনের মাধ্যমে শৃঙ্গে পৌঁছানোর খবর ওয়াসফিয়া তাদের জানান।wasfia-1
‘ওয়াসফিয়া জানান, বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৪০ বছর উদযাপনের জন্য আমরা এই ক্যাম্পেইন শুরু করি, যা ‘৭১-এর চেতনাকে আরো পরিপূর্ণ করার একটি প্রয়াস এবং তাদের জন্য উৎসর্গ করছি, যারা দেশের জন্য প্রাণ দিয়েছেন। নিজ ভূমিতে ফেরার জন্য আমি উদগ্রীব হয়ে আছি।’
গত চার বছর ধরে সেভেন সামিটস জয়ের এই অভিযানে যাদের কাছে সহযোগিতা আর উৎসাহ পেয়েছেন, তাদের সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন তিনি। ২০১২ সালের ৯ জুন দ্বিতীয় বাংলাদেশি নারী হিসেবে এভারেস্ট চূড়ায় ওঠেন ওয়াসফিয়া নাজরীন। এর আগের বছরই সাত শৃঙ্গ জয় করার ঘোষণা দেন তিনি।
এরপর একে একে তিনি জয় করেন আফ্রিকার কিলিমানজারো, দক্ষিণ আমেরিকার আকোনকাগুয়া, অ্যান্টার্কটিকার ভিনসন ম্যাসিফ, ইউরোপের মাউন্ট এলব্রুস এবং উত্তর আমেরিকার ডেনালি চূড়া। আর এবার কারস্তেনস পিরামিড জয়ের মধ্যদিয়ে ওয়াসফিয়ার ‘সেভেন সামিটস’ পূর্ণ হলো।
‘দুঃসাহসী অভিযানের মাধ্যমে নারীর ক্ষমতায়নে নিজের অঙ্গীকার ও কর্মতৎপরতার জন্য’ ওয়াসফিয়াকে ২০১৪ সালের অন্যতম বর্ষসেরা অভিযাত্রীর খেতাব দিয়েছিল ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক।

Check Also

satv

এসএ টিভির ৪র্থ বর্ষপূর্তি

মিডিয়া খবর:- রাত ১২টা ১ মিনিটে কেক কাটার মধ্য দিয়ে এসএ টিভি চার বছর পূর্ণ …

Qamrul Hassan Bhuiyan

স্বাধীনতাযুদ্ধের ঘটনাসমূহ কথনের প্রকাশনা উৎসব

মিডিয়া খবর:-     :- কাজী চপল -: মুক্তিযুদ্ধ – প্রকাশনা উৎসব হবে ২১ জানুয়ারি ২০১৭,শনিবার  মুক্তিযুদ্ধ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares