Home » চলচ্চিত্র » জালালের গল্পের প্রিমিয়ার শো
jalaler-galpo

জালালের গল্পের প্রিমিয়ার শো

Share Button

মিডিয়া খবর:-

ইমপ্রেস টেলিফিল্মের বহু আলোচিত ও প্রশংসিত চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে একটি হচ্ছে জালালের গল্প’। এ চলচ্চিত্রটি মুক্তির আগেই অর্জন করেছে পর্তুগালে অনুষ্ঠিত ১৯তম আভাঙ্কা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে শ্রেষ্ঠ ছবির পুরস্কার। পেয়েছে বিনা কর্তনে সেন্সর ছাড়পত্র। বহুপ্রতিক্ষিত ছবিটি অবশেষে মুক্তি পাচ্ছে আগামী ৪ সেপ্টেম্বর। ছবিটি একই সাথে মুক্তি পাবে যমুনা ব্লকবাস্টার সিনেমাস, বসুন্ধরা সিটি স্টারসিনেপ্লেক্স, মধুমিতা, বলাকা সিনেওয়ার্ল্ড, শ্যামলী সিনেপ্লেক্স-সহ দেশের ২৫টি সিনেমা হলে। ছবিটির কাহিনী, চিত্রনাট্য ও পরিচালনা করেছেন তরুণ নির্মাতা আবু শাহেদ ইমন। এটি তার প্রথম চলচ্চিত্র।

ছবিটির মুক্তি উপলক্ষে যমুনা ব্লকবাস্টার সিনেমায় ৩০ আগস্ট প্রিমিয়ার শো অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ইমপ্রেস টেলিফিল্ম লি. এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর, যমুনা গ্র“পের পরিচালক ড. মো. আলমগীর ও এসএম আবদুল ওয়াদুদ, ছবির পরিচালক আবু শাহেদ ইমন, ছবির অভিনয়শিল্পী মোশাররফ করিম, তৌকীর আহমেদ, শর্মীমালা-সহ অন্যরা। তরুণ এই নির্মাতাকে উৎসাহ দিতে প্রিমিয়ার শোতে উপস্থিত হন- নাসির উদ্দিন ইউসুফ বাচ্চু, আবু সাইয়ীদ, গোলাম রাব্বানী বিপ্লব, বিপাশা হায়াত প্রমুখ।

‘জালালের গল্প’ চলচ্চিত্রের অভিনয় করেছেন মোশাররফ করিম, মৌসুমী হামিদ, তৌকীর আহমেদ, শর্মীমালা, নূরে আলম নয়ন, মিতালি দাশ, ফজলুল হক, আহমেদ গিয়াস প্রমুখ। নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছে নবাগত মোহাম্মদ ইমন ও আরাফাত রহমান। সংগীত পরিচালনা করেছে চিরকুট।

‘জালালের গল্প’-এ তিন পর্বে এক নবজাতক, ৮ বছরের এক শিশু ও ২০ বছরের এক ছেলের গল্প বলা হয়েছে। যাদের প্রত্যেকেরই নাম জালাল এবং নদীমাতৃক বাংলাদেশের নদীর পাড় ধরেই যাদের জীবন সংগ্রামের গল্প তুলে ধরা হয়েছে।

প্রথম গল্পের শুরু হয় একদিন সকালে বাংলাদেশের এক প্রত্যন্ত গ্রাম, নদীর চড়ে গড়ে ওঠা নিশ্চিন্তপুর। সেই গ্রামেরই এক জেলে মিরাজ ঘাটে গোসল করতে গিয়ে সন্ধান পায় একটি ড্যাগের। গ্রামবাসী আবিষ্কার করে ড্যাগের ভেতরে এক মানব শিশু। গ্রামবাসী শিশুটিকে মিরাজকে দিয়ে দেয়। ঠিক সেই দিন থেকেই আচমকা নদীতে প্রচুর মাছধরা পরে। গ্রামবাসী মনে করে এই বাচ্চা সাধারণ কোনো বাচ্চা না। মিরাজ বাচ্চাটার নাম দেয় জালাল। সে নবজাতক জালালকে নিয়ে শুরু করে নতুন এক ব্যবসা। জালালের শরীর ধোঁয়া পানি খাইলে সমস্ত রোগ ভালো হয়ে যায়। দলে দলে গ্রামবাসী অর্থের বিনিময়ে মিরাজের কাছ থেকে পাড়ি পড়া নিতে থাকে। কিছুদিনের ভেতরেই মিরাজের পরিবারের পরিবর্তন শুরু হয়। অনেক টাকার মুখ দেখতে থাকে মিরাজ। কিন্তু গ্রামের আর এক প্রভাবশালী আমিন এটা মেনে নিতে পারে না। সে মিরাজের কাছে টাকার ভাগ চায়। মিরাজ তাকে টাকার ভাগ দিতে অস্বীকার করলে আমিন মিরাজের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয়। ধীরে ধীরে গ্রামবাসী বিভক্ত হতে থাকে। এরই ভেতরে গ্রামে নদী ভাঙন ও কলেরা দেখা দেয়। আমিন এগুলো কাজে লাগিয়ে গ্রামের মানুষকে বোঝাতে থাকে আর চেয়ারম্যানের কাছে বিচার দেয়। বিচারে সবাই আমিনের পক্ষ নেয়। এই জালালকে ড্যাগে ভাসিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়।

দ্বিতীয় গল্পে আমরা নতুন এক গ্রামে এক প্রভাবশালী ব্যক্তি করিমের বাড়িতে ৮ বছরের জালালকে দেখি। করিম এলাকার প্রভাবশালী ও অনেক টাকা পয়সার মালিক। কিন্তু বাচ্চা না থাকার জন্য এলাকার মানুষ তাকে আটকুড়া বলে ডাকে। করিম এলাকার চেয়ারম্যান পদে লড়তে চায়। এই জন্য সে তার বদনাম ঘোচাতে রহিমা নামের এক গরিব ঘরের মেয়েকে বিয়ে করে আনে। তাকে শর্ত দেওয়া হয় নির্বাচনের আগে তার সন্তান ধারণ করতে হবে। কিন্তু নতুন বিয়েতেও কোনো কাজ হয় না। তাই করিম এক কবিরাজ আকমলকে তার বাড়িতে আনে। কবিরাজ অনেক ফন্দি ফিকির করে রহিমার গর্ভে সন্তান ধারণের জন্য। জালালের চোখে আমরা কবিরাজের আধ্যাত্মিক প্রক্রিয়ায় ভণ্ডামি আর রহিমার অসহায় দেখতে পাই। এর ভেতরে কবিরাজের অপারগতা সে ছোট জালালের উপড়ে চাপিয়ে দেয়। জালালকে কুফা বানিয়ে সে নানাভাবে জালালের উপর অত্যাচার করতে থাকে। একপর্যায়ে করিমকে বুঝিয়ে বিলাই বান্ধার নামে জালালকে বস্তায় বেধে কলার ভেলায় ভাসিয়ে দেয়। আর করিমও নিজের সন্তান লাভের আসায় নাম না জানা এই মানব সন্তান জালালকে নদীর জলে ভাসিয়ে দেয়।

গল্পের শেষ পর্ব শুরু হয় ২০ বছরের জালালকে নিয়ে যে এলাকার এক প্রভাবশালী সজীব এর ছত্রছায়ায় তার সমস্ত অবৈধ কাজের তদারকি করে। সজীব এলাকার এক ইটভাটার মালিক। সে তার প্রভাব খাটিয়ে এলাকার মানুষের জমি দখল করে। জালালকে সে নিজের ছেলের মতোই দেখে। সজীব জালালকে দিয়ে যাত্রাদলের এক মেয়ে শিলাকে তুলে তার আস্তানায় নিয়ে আসে। জোরপূর্বক শীলার সাথে সজীব অবৈধ সম্পর্কে লিপ্ত হয়। এরই ভেতরে সজীব তার ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য নির্বাচনে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয়। সজীবের নির্বাচনের প্রস্তুতি চলতে থাকে। এরই ভেতরে একদিন শিলা গর্ভবতী হয়ে যায়। এলাকায় ব্যাপারটা নিয়ে কথা চলতে থাকে। সজীব নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে শিলাকে অন্য জায়গায় পাঠিয়ে দেয় এবং জালালকে শিলার দেখাশোনা করার দায়িত্ব দেয়। সজীব নির্বাচনের প্রস্তুতি নিতে থাকে। জালাল শিলার দেখাশোনা করে। কিছুদিন পরেই শিলা এক নবজাতকের জন্ম দিয়ে মারা যায়। খবরটা সজীবের কানে গেলে সজীব নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে বাচ্চাটাকে মেরে ফেলতে বলে। সজীবের কাছের সহযোগী রিপন আর শান্ত জালালকে অন্য দিকে পাঠিয়ে বাচ্চাটাকে একটা ড্যাগে করে নদীতে ভাসিয়ে দেয়। জালাল লুকিয়ে লুকিয়ে তাদের পিছু নেয়। জালাল বাচ্চাটাকে বাঁচানোর চেষ্টা করে, কিন্তু জালাল সাঁতার জানে না। একপর্যায়ে জালাল বাচ্চাটাকে বাঁচানোর জন্য নদীতে ঝাঁপ দেয়।

২০-২৬ জুলাই পর্তুগালে অনুষ্ঠিত ১৯তম আভাঙ্কা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে শ্রেষ্ঠ ছবির পুরস্কার পেয়েছে ইমপ্রেস টেলিফিল্ম লি. এর ছবি ‘জালালের গল্প’। পাশাপাশি উৎসবে সেরা অভিনেতা বিভাগে পুরস্কার পেয়েছেন এ ছবির অন্যতম অভিনয়শিল্পী মোশাররফ করিম। ১২১টি দেশের দুই হাজার দুইশতটি নিবন্ধিত চলচ্চিত্র থেকে ১১৮টি ছবি বিভিন্ন বিভাগে প্রতিযোগিতার জন্য নির্বাচিত হয়েছিলো। তার মধ্যে ‘জালালের গল্প’ একটি।

২০১৪ অক্টোবরে ১৯তম বুসান চলচ্চিত্র উৎসবের এশিয়ান সিনেমা ফান্ড পেয়েছে এবং উৎসবটির মূল প্রতিযোগিতা বিভাগ ‘নিউ কারেন্টস’ বিভাগে প্রথম বাংলাদেশি ছবি হিসেবে বিশ্ব প্রিমিয়ার করেছিল। একই বছরের নভেম্বরে ভারতের গোয়াতে অনুষ্ঠিত ৪৫তম আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে প্রথমবারের মত অনুষ্ঠিত হওয়া ‘অ্যা উইন্ডো অন সাউথ এশিয়ান সিনেমা’ বিভাগে একমাত্র বাংলাদেশি চলচ্চিত্র হিসেবে প্রদর্শণের জন্য মনোনিত হয়েছিল।

২০১৫ সালের ফেব্রুয়ারির শুরুতে ভারতের রাজস্থানে অনুষ্ঠিত হওয়া ৭ম জয়পুর চলচ্চিত্র উৎসবে মূল প্রতিযোগিতা বিভাগে অংশ নিয়েছিল ছবিটি এবং ‘জালালের গল্প’র জন্য আবু শাহেদ ইমন সেরা নবাগত নির্মাতার পুরষ্কার পেয়েছে। এ বছরের এপ্রিলে ইরানের রাজধানী তেহরানে অনুষ্ঠিত ৩৩তম ফজর আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব এবং ১৭-২৩ জুলাই ফিজির রাজধানী সুভাতে অনুষ্ঠিতব্য ৬ষ্ঠ ফিজি আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের মূল প্রতিযোগিতা বিভাগে জালালের গল্প প্রদর্শিত ও প্রশংসিত হয়েছে।

Check Also

nuru miah o tar beauty driver

নুরু মিয়া ও তার বিউটি ড্রাইভার

মিডিয়া খবর :- গত ২৪ জানুয়ারি কোনও কর্তন ছাড়াই বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের ছাড়পত্র পায় …

tanha, shuva

ভাল থেকো চলচিত্রের পোস্টার প্রকাশ

মিডিয়া খবর:- প্রকাশ হল জাকির হোসেন রাজুর নির্মিতব্য চলচিত্রের পোস্টার। জাকির হোসেন রাজুর নির্মাণে আসছে নতুন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares