Home » ইভেন্ট » বেঙ্গল শিল্পালয়ে বেলা অবেলার রঙরাগিণী
tahera-pic

বেঙ্গল শিল্পালয়ে বেলা অবেলার রঙরাগিণী

Share Button

মিডিয়া খবর:-

ধানমন্ডির বেঙ্গল গ্যালারিতে শুরু হয়েছে একক চিত্রকলা প্রদর্শনী। শিল্পী তাহেরা খানমের ‘বেলা অবেলার রঙরাগিণী’ শীর্ষক এই প্রদর্শনীটি ৫ জুন ২০১৫ শুক্রবার সন্ধ্যায় যৌথভাবে উদ্বোধন করেন tahera-khanamশিল্পী সৈয়দ জাহাঙ্গীর এবং শিল্পী সমরজিৎ রায় চৌধুরী। অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন শিল্পী তাহেরা খানম এবং বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক লুভা নাহিদ চৌধুরী। প্রদর্শনীতে স্থান পেয়েছে তাহেরা খানমের ২০১০ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত আঁকা ৪৮টি ছবি। সব কটিই ক্যানভাসে অ্যাক্রিলিকের কাজ।

২০০৩ সালে তাহেরা খানমের প্রথম একক প্রদর্শনী হয়েছিল চিত্রক গ্যালারিতে। এর দীর্ঘদিন পর বেঙ্গল গ্যালারিতে তাঁর বেলা অবেলার রঙরাগিণী চিত্রপ্রদর্শনী আয়োজিত হচ্ছে। প্রকৃতির নানা অনুষঙ্গ, ফুল, বৃক্ষ, পর্বত, পাখি যেমন তাঁর চিত্রপটে এসেছে, তেমনি মাছ, জল, নৌকা, আকাশ ইত্যাদি নানা বিষয়কেও তিনি মোটা রেখা এবং সরল আকারে চিত্রিত করেছেন। পারিপার্শ্বিক নানা চরিত্রের দেখা যেমন মেলে তাঁর চিত্রে, তেমনি এসব চরিত্রের সঙ্গে প্রকৃতির নানা উপাদানের যে প্রহেলিকাময় রসায়ন, তারও উপস্থিতি দৃশ্যমান হয়। মানবীয় সম্পর্কের নানা অদ্ভুত বৈপরীত্য তাহেরা খানমের শিল্পমানসে উত্তর-অন্বেষণ করে।

শিল্পী তাহেরা খানম তাঁর সময়ের এগিয়ে থাকা মানুষ, এক প্রত্যয়ী নাবিক। নারীর প্রতি পঞ্চাশের দশকে যে বৈরী দৃষ্টিভঙ্গি ছিল, তা তাঁকে খুব একটা দমিয়ে রাখতে পারেনি। শিল্পচর্চায় ঝোঁক ছিল বিশেষভাবে। সেতার শেখায় সাধনা ছিল, তবে চিত্রকলায় খুঁজে পেয়েছিলেন নিজের স্বত্ত্বাকে। জীবনসঙ্গী কাইয়ুম চৌধুরীকে চিত্রসৃষ্টিতে অবিরত উৎসাহ জোগাতেন, তবে নিজের চিত্রকর্ম নিয়ে খুব একটা সরব ছিলেন না। তথাপি নীরব চর্চার মাধ্যমে নিজের একটি আলাদা চিত্রভাষা নির্মাণে তিনি সচেষ্ট ছিলেন।

প্রদর্শনীটি চলবে ২৫ জুন পর্যন্ত উন্মুক্ত থাকবে প্রতিদিন দুপুর ১২ টা থেকে রাত ৮ টা অবধি।

 

 

Check Also

digital-fair

ঢাকায় ৬ দিনব্যাপী প্রযুক্তি পণ্যের মেলা

মিডিয়া খবরঃ- ‘দ্য অনলি ওয়ে টু ফ্লাই’ স্লোগানকে সামনে রেখে বড় পরিসরে দেশের বৃহত্তম কম্পিউটার …

vupen-hazarika

ভূপেনের গান শোনাবেন লিয়াকত আলী

মিডিয়া খবর:- আজ উপমহাদেশর কিংবদন্তি সংগীত শিল্পী  ভূপেন হাজারিকার পঞ্চম মৃত্যুবার্ষিকী। এ উপলক্ষে শিল্পকলা একাডেমির …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares