Home » মঞ্চ » শিল্পকলায় আজ শ্যামাপ্রেম ও কঙ্কাল

শিল্পকলায় আজ শ্যামাপ্রেম ও কঙ্কাল

Share Button

মিডিয়া খবর :-

জাতীয় নাট্যশালার মূলমঞ্চে

জাতীয় নাট্যশালার মূলমঞ্চে আজ সোমবার সন্ধ্যা ৬টা ৩০ মিনিটে মঞ্চস্থ হবে প্রাঙ্গণেমোরে শ্যামাপ্রেম।

প্রাঙ্গণেমোর-এর উদ্যোগে চলছে দুই বাংলার নাট্যমেলা ‘রবীন্দ্রনাথ ও অন্যান্য’। এরই অংশ হিসবে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাshyma-prem-1ট্যাশালার মূল মিলনায়তনে মঞ্চস্থ হতে যাচ্ছে নাটক ‘শ্যামাপ্রেম’। কবি গুরু রবীন্দ্রনাথের বিখ্যাত নৃত্যনাট্য ‘শ্যামা’ অবলম্বনে রচিত হয়েছে মঞ্চ নাটক ‘শ্যামাপ্রেম’। চিত্তরঞ্জন ঘোষের নাট্যরূপে নাটকটির নির্দেশনায় রয়েছেন অনন্ত হিরা। উল্লেখ্য, এবারের নাট্যমেলায় কলকাতার ৪ ও ঢাকার ৮ নাটক মঞ্চায়িত হবে। 

নর-নারীর প্রেমই এই নাটকের মূল উপজীব্য। দরিদ্র কৃষক পরিবারের মেয়ে শ্যামা জমিদারের লোক দ্বারা অপহৃত হয় এবং এবং রাজদরবারের নর্তকীর জীবন বেছে নিতে বাধ্য হয়। শ্যামা ভালোবাসে বজ্র সেনকে। বজ্র সেন সুবর্ণ দ্বীপ হতে এক মহামূল্যবান ইন্দ্রমণির হার নিয়ে এসেছে। এদিকে রাজদরবার হতে একটি মূল্যবান হার চুরি হয়ে যাওয়ায় রাজকোটাল চোর খুঁজে বেড়াচ্ছে। রাজকোটাল বজ্র সেনকে চোর বানিয়ে রাজার কাছে নিজের মান রক্ষা করতে চায়। বজ্র সেন পালিয়ে বেড়ায়। অপর দিকে উত্তীয় নামের এক যুবক ভালোবাসে শ্যামাকে। সে শ্যামার জন্য যেকোন কিছু করতে প্রস্তুত।

বজ্র সেন এক সময় রাজকোটালের হাতে ধরা পড়ে যায়। তখন শ্যামার অনুরোধে বজ্র সেনকে বাঁচাতে উত্তীয় নিজেকে চোর বলে পরিচয় দেয়। রাজকোটাল তখন বজ্র সেনকে ছেড়ে দিয়ে উত্তীয়কে গ্রেপ্তার করে এবং উত্তীয়র মৃত্যুদ্বন্ড হয়। শ্যামা অবশেষে তার কাঙ্ক্ষিত মানুষ বজ্র সেনকে লাভ করে। কিন্তু তার মন থেকে উত্তীয়কে মুছে ফেলতে পারে না। সখীদের নিষেধ সত্বেও শ্যামা বজ্র সেনকে বলে ফেলে উত্তীয়র আত্মত্যাগের কথা। এতে বজ্র সেন ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে এবং শ্যামাকে পরিত্যাগ করে।

জাতীয় নাট্যশালার এক্সপেরিমেন্টাল থিয়েটার হলে

জাতীয় নাট্যশালার এক্সপেরিমেন্টাল থিয়েটার হলে আজ সোমবার মঞ্চস্থ হবে নাট্যতীর্থের  কঙ্কাল। 

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ছোটগল্প ‘কঙ্কাল’ অবলম্বনে একই শিরোনামে নাটকটি রচনা করেছেন রবিউল আলম। নাটকটির নির্দেশনায় আছেন তপন হাফিজ। নাটকে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন তপন হাফিজ, সাদিয়া ইসলাম শান্তা, শামসুর রহমান পেরু, মাহমুদুর রহমান, ইসমাইল আহমেদ অয়ন, মারুফ তমাল, সাইফুর রহমান,, শাওন, পলাশ, নুরজাহান রহমান কলি এবং মোনালিসা মোনা।

নাটকের গল্পে দেখা যায় বাড়িতে স্থান সঙ্কুলান না হওয়ায় খোকাবাবুকে রাতে তার ছোটবেলার পড়ার ঘরে থাকতে হয় যেখানে রয়েছে মানুষের অস্থি। রাতে ঘুম ভেঙে গেলে খোকাবাবু দেখতে পায় সুন্দরী ইন্দুবালাকে। এই ইন্দুবালার কঙ্কালই খোকাবাবুর পড়ার ঘরে ছিল। এরপর খোকাবাবুর সাথে ইন্দুবালার আলাপচারিতা চলতে থাকে। নাটকের দ্বিতীয় অংশে থাকে ফ্লাশব্যাক যেখানে ইন্দুবালার অতীত দেখানো হয়। এ অংশে শশী শেখরের সাথে ইন্দুবালার প্রণয়ের বিষয়টি দর্শকদের সামনে উন্মোচিত হয়।

Check Also

শিল্পকলায় মর্তের অরসিক

মিডিয়া খবর:- আজ শিল্পকলা একাডেমীর স্টুডিও থিয়েটার হলে সন্ধ্যা ৭ টায় মঞ্চায়িত হবে বঙ্গলোকের দ্বিতীয় …

আজ নাটক কঞ্জুসের ৬৯০ তম মঞ্চায়ন

মিডিয়া খবর :- ৭০০ তম মঞ্চায়নের পথে এগিয়ে চলেছে হাসির নাটক কঞ্জুস। আজ নাটকটির ৬৯০ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares