Home » ইভেন্ট » সত্যেন সেন গণসঙ্গীত উৎসব ও জাতীয় গণসঙ্গীত প্রতিযোগিতা-২০১৫
satten-sen

সত্যেন সেন গণসঙ্গীত উৎসব ও জাতীয় গণসঙ্গীত প্রতিযোগিতা-২০১৫

Share Button

মিডিয়া খবর:-

‘পথে পথে মিছিলের প্রতিরোধ, জনতার ঐক্যকে গড়েছি’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠীর আয়োজনে আগামি ২৭ ও ২৮ মার্চ, অনুষ্ঠিত হবে “ষষ্ঠ সত্যেন সেন গণসঙ্গীত উৎসব ও জাতীয় গণসঙ্গীত প্রতিযোগিতা ২০১৫”। উদীচীর প্রতিষ্ঠাতা সত্যেন সেন-এর জন্মদিনকে কেন্দ্র করে গত কয়েক বছর ধরে এ উৎসব আয়োজিত  হয়। এরই ধারাবাহিকতায় এবারের উৎসবে আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন ভারতের বিশিষ্ট গণসঙ্গীত শিল্পী শুভপ্রসাদ নন্দী মজুমদার। দুই দিনব্যাপী এ উৎসবে স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের মাধ্যমে মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মুখ সমরে অনুপ্রেরণা দেওয়া ১০ জন কণ্ঠসৈনিককে উদীচীর পক্ষ থেকে সম্মাননা জানানো হবে। উদীচীর এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রতিযোগিতার প্রাথমিক পর্ব সম্পর্কে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ষষ্ঠ সত্যেন সেন গণসঙ্গীত উৎসব ও জাতীয় গণসঙ্গীত প্রতিযোগিতা ২০১৫ সফল করার লক্ষ্যে উদীচীর কেন্দ্রীয় সভাপতি কামাল লোহানীকে চেয়ারম্যান এবং শংকর সাঁওজালকে আহ্বায়ক করে গঠিত ৯১ সদস্যের প্রস্তুতি পরিষদ গঠন করা হয়েছে। এরই মধ্যে চলছে জেলা পর্যায়ের প্রতিযোগিতা। এ প্রতিযোগিতায় ঢাকা জেলা পর্ব আয়োজিত হবে আগামী ৭ মার্চ। ওই দিন বিকাল ৩.০০টায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমীর সঙ্গীত ও নৃত্যকলা ভবনের ১০৫ নম্বর মহড়া কক্ষে অনুষ্ঠিত হবে বিভিন্ন বিভাগের প্রতিযোগিতা।

প্রতিযোগিতার ঢাকা জেলা পর্বে অংশগ্রহণের জন্য নিবন্ধন ফরম পাওয়া যাবে উদীচীর কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে (১৪/২, তোপখানা রোড-জাতীয় প্রেস ক্লাবের বিপরীতে)।

চূড়ান্ত প্রতিযোগিতার বিষয়ে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সারা দেশের বাছাই পর্ব শেষে আগামী ২৭ মার্চ সকাল ১০টায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমীর উন্মুক্ত প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হবে জাতীয় পর্যায়ের প্রতিযোগিতা। ক, খ, গ ও ঘ দলীয় এই চারটি বিভাগে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। একক প্রতিযোগিতার ক্ষেত্রে অনূর্ধ্ব-১২ বছর বয়সীরা ক বিভাগে, অনূর্ধ্ব-১৮ বছর বয়সীরা খ বিভাগে এবং ১৮ বছরের বেশী বয়সী সকল প্রতিযোগী গ বিভাগের অন্তর্ভুক্ত থাকবেন। দলীয় প্রতিযোগিতা ঘ বিভাগ-এক্ষেত্রে কমপক্ষে চারজন শিল্পীর অংশগ্রহণ বাঞ্চনীয়।

প্রতিযোগিতায় গান উপস্থাপনের বিষয়ে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রগতিশীল গণচেতনা সম্পন্ন জাগরণমূলক গান, শ্রমিক-কৃষক-মেহনতি মানুষের দুঃখ-দুর্দশা এবং অধিকার সম্পন্ন সচেতনতামূলক গান, মুক্তিযুদ্ধের চেতনাসমৃদ্ধ গান, স্বাধীনতা সংগ্রামের গান, সমাজের অন্যায় অত্যাচার নিপীড়ন অবসানের দিক নির্দেশনামূলক গান, মৌলবাদ-সাম্প্রদায়িকতাবিরোধী গান, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির গান, যুদ্ধবিরোধী-স্বৈরাচার বিরোধী গান, সাম্রাজ্যবাদ ও পুঁজিবাদবিরোধী গান, বিশ্ব শান্তির পক্ষে গান, শোষণের বিরুদ্ধে গান, মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিরুদ্ধে গানকে গণসঙ্গীত হিসেবে বিবেচনা করা হবে।

এ ছাড়া, বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে সহিংসতার বিরুদ্ধে রচিত ও সুরারোপিত নতুন গণসঙ্গীতসমূহ বেশী গুরুত্ব পাবে।

Check Also

khilkhil kazia

খিলখিল কাজীর আবৃত্তি ও সঙ্গীতসন্ধ্যা আজ

মিডিয়া খবর :- ইন্দিরা গান্ধী সাংস্কৃতিক কেন্দ্র (আইজিসিসি) আজ শুক্রবার কাজী নজরুল ইসলামের ১১৭তম জন্মজয়ন্তী …

ganmela

সংগীতশিল্পী সোসাইটির সংগীতমেলা ২০১৬

মিডিয়া খবর:- আজ ২৩ এপ্রিল বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি মাঠে সম্মিলিত সংগীতশিল্পী সোসাইটির উদ্যোগে শুরু হচ্ছে ‘সংগীতমেলা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares