Home » নিবন্ধ » সোলস -শহীদ মাহমুদ জঙ্গি- আইয়ুব বাচ্চু ও দুটো গানের পেছনের কথা
souls

সোলস -শহীদ মাহমুদ জঙ্গি- আইয়ুব বাচ্চু ও দুটো গানের পেছনের কথা

Share Button

মিডিয়া খবর:-       -:ফজলে এলাহী পাপ্পু:-

এলআরবি’র ‘একদিন ঘুম ভাঙ্গা শহরে’ ও ‘’তুমি ছিলে আমি ছিলাম ‘’ গান দুটো শোনেনি এমন ব্যান্ড সঙ্গীতের শ্রোতা পাওয়া যাবে না। কিন্তু বহুল জনপ্রিয় কালজয়ী গান দুটোর সম্পর্কে কোন শ্রোতা ই জানেন না হয়তো। আজ আপনাদের সাথে গান দুটোর পেছনের কথা, ‘এলআরবি’ ব্যান্ডের শুরুটার কারণ সম্পর্কে অজানা কিছু কথা জানাবো যার পুরোটাই নেয়া হয়েছে উল্লেখিত গান দুটোর গীতিকার শহীদ মাহমুদ জঙ্গি ভাইয়ের কাছ থেকে যিনি ছিলেন সেইসময়ে সোলস, আইয়ুব বাচ্চু’র খুব কাছের একজন মানুষ।

মূল কথায় যাওয়ার আগে কিছু কথা না বললেই নয় তা হলো সেই কিশোর বেলা থেকেই ‘শহীদ মাহমুদ জঙ্গি’ নামটির সাথে পরিচয় হয়। অ্যালবামের কভারে যে গানের পাশে এই নামটি লেখা দেখতাম সেই গানটি অবশ্যই শুনতাম আর প্রতিবারই মুগ্ধ হয়েছি গানগুলো শুনে। শহীদ মাহমুদ জঙ্গি ভাইয়ের লেখা একটি গানও আজ পর্যন্ত খুঁজে পেলাম না যা ভালো না লাগার তালিকায় ফেলতে পারি। গতবছর ফেইসবুকের মাধ্যমেই শহীদ মাহমুদ জঙ্গি ভাইয়ের সাথে সরাসরি পরিচয় ঘটিয়ে দেন আমেরিকা প্রবাসী ইশতিয়াক মাহমুদ ভাই। সেই থেকে দূর থেকে হলেও প্রিয় মানুষটির সান্নিধ্যে আসার সৌভাগ্য হয়েছে আমার আর জানতে পেরেছি ব্যান্ড সঙ্গীতের বহু অজানা তথ্য যা দিয়ে একটি বই লিখে ফেলা সম্ভব। যা হতে পারে আমাদের ব্যান্ড সঙ্গীতের ইতিহাসের অংশ। শহীদ মাহমুদ জঙ্গি ভাইকে জানাই অন্তরের অন্তস্থল থেকে লক্ষ কোটি স্যালুট।

এবার আসি মূল প্রসঙ্গে – বাংলাদেশের ব্যান্ড সঙ্গীতে ‘এলআরবি’র জন্ম ১৯৯২ সালে। নিজেদের প্রথম অ্যালবাম (একসাথে দুটো ক্যাসেট ১ ও ২)নিয়ে ‘এলআরবি’ এসেই ঝড় তোলে এবং ব্যান্ড সঙ্গীতে নিজেদের এগিয়ে যাওয়ার বার্তা জানিয়ে দেয়। সেই দুটো অ্যালবামের প্রথম ক্যাসেটটি শুরু হয় ‘এ সাইড’ ‘একদিন ঘুম ভাঙ্গা শহরে ’গানটি দিয়ে এবং একই সাইড শেষ হয় ’তুমি ছিলে’ গানটি দিয়ে যার গীতিকার ছিলেন শহীদ মাহমুদ জঙ্গি ভাই। অর্থাৎ এলআরবি’র শ্রোতাদের সামনে প্রথম গান ছিল ‘একদিন ঘুম ভাঙ্গা শহরে ‘ গানটি কিন্তু আমি যদি বলি শুধু এলআরবি নয় ব্যান্ড সঙ্গীতের জীবন্ত কিংবদন্তী আইয়ুব বাচ্চু’র। টেলিভিশনের পর্দায় প্রথম পরিবেশিত ব্যান্ডের গান ‘একদিন ঘুম ভাঙ্গা শহরে’ যা ছিল ব্যান্ড এলআরবি গঠনেরও আগে তাহলে কি অবাক হবেন? অনেকে হয়তো অবাক হবেন আবার আমার সমবয়সীরা হয়তো অবাক হবেন না কারণ সেটা আমরা টেলিভিশনের পর্দায় দেখেছিলাম ১৯৯১ সালে। তাহলে আসুন বিষয়টা এবার খোলাসা করে বলি গানটির সৃষ্টির শুরু থেকে।

১৯৯১ সালের ফাল্গুনের এক দিনে ‘সোলস’ এর একজন গিটারিস্ট ছিলেন সুহাস যার বাড়ীতে নিমন্ত্রণে গিয়েছিলেন ‘সোলস’ ব্যান্ডের তৎকালীন সদস্যরা সবাই (তপন চৌধুরী ছাড়া) সাথে ছিলেন গীতিকার শহীদ মাহমুদ জঙ্গি। সুহাসের বাড়িটি ছিল চট্টগ্রামের ‘ফরেস্ট হিল’ এলাকায়। সেখানে যাওয়ার পর সবাই মিলে আশেপাশের পাহাড় অরণ্য ঘুরে বেড়াতে লাগলেন। আইয়ুব বাচ্চু যেখানেই ঘুরে বেড়াতে যেতেন সাথে থাকতো তাঁর একটি গীটার। সবাই যখন মুগ্ধ প্রকৃতি দেখায় ব্যস্ত তখন আইয়ুব বাচ্চু জঙ্গি ভাইকে প্রস্তাব দিলেন ‘’জঙ্গি ভাই এমন সুন্দর পরিবেশে গান ছাড়া কি চলে? চলুন আমরা কোন গান তোলার চেষ্টা করি। জঙ্গি ভাইও আইয়ুব বাচ্চ’র প্রস্তাবে সানন্দে রাজি হয়ে সাদা কাগজ কলম নিয়ে বসে গেলেন নতুন কিছু সৃষ্টির উম্মাদনায়।

পাহাড়ের পাদদেশে বসেই কিছুক্ষন টুংটাং করতে লাগলেন জঙ্গি ভাই কিছু লাইন দাড় করালেন এমন-
’একদিন ঘুম ভাঙ্গা শহরে
মায়াবী সন্ধ্যায় চাঁদজাগা একরাতে
একটি কিশোর ছেলে
একাকী স্বপ্ন দেখে
হাসি আর গানে সুখের ছবি আঁকে
আহা কি যে সুখ‘ …… এইটুকু লিখেই থেমে গেলেন। জঙ্গি ভাই বললেন ’বাচ্চু এইটুকু থাক, এটাকে গানের মুখ ধরে পরে এগোবো‘ বলে সেদিন ঘুম ভাঙ্গা শহরের গানটির আর কোন অন্তরাও লিখলেন না, কোন লাইনও লিখলেন না।

জঙ্গি ভাই হয়ে গেছেন অন্যমনস্ক কারণ তিনি দেখছেন সবুজ ঘাসের উপর কিছু ফুল পড়ে আছে আর জঙ্গি ভাইয়ের মাথায় তখন খেলা করছে ফুল, ঘাস, সবুজ প্রকৃতি এসব। কিছুক্ষন পর তিনি আইয়ুব বাচ্চু’কে বললেন ’কি জানি এক দিন ছিল / ঘাসেররও দোলায় ফুল ছিল… এই লাইনগুলো কেমন হয় “। গানের লাইন দুটো বাচ্চু ভাইয়ের মনে ধরলো আর ‘তখনই ঘুম ভাঙ্গা শহর’ ভুলে ঐ জায়গায় বসেই জঙ্গি ভাই রোমান্টিক বিরহ মুডের সংমিশ্রণে লিখে ফেললেন ’তুমি ছিলে আমি ছিলাম‘ গানটি। এভাবেই ফরেস্ট হিলেই সেদিনই রচিত হয়ে গেলো একটি কালজয়ী গানের প্রথম অংশ আর আরেকটি গানের শুরু থেকে শেষ।

এরপর কয়েকদিন পর জঙ্গি ভাই সহ সোলসের সবাই ঢাকায়। আইয়ুব বাচ্চুর সৃষ্টির মগ্নে ব্যস্ত থাকতেন জঙ্গি ভাইয়ের মালিকানাধীন ‘হোটেল ব্লু নাইন’ এর ১৪ নং কক্ষে। সেখানেই আইয়ুব বাচ্চু থাকতেন আর সোলসের সদস্যরা প্রতিদিন যাতায়াত করতেন, প্র্যাকটিস করতেন সেখানেই । তপন চৌধুরী তখন ব্যক্তিগত কারণে সোলসে অনুপস্থিত। ৯১ সালে বিটিভির একটি ব্যান্ড শো অনুষ্ঠানে সোলসের ডাক পড়ে যেখানে আরও ছিল মাইলস, ফিডব্যাক, চাইম, অবসকিউর সহ আরও তৎকালীন সময়ের জনপ্রিয় ব্যান্ডগুলো। তপনের অনুপস্থিতিতে নতুন গান নিয়ে ভাবনায় পড়ে যায় সোলসের সদস্যরা ঠিক তখনই আইয়ুব বাচ্চু’র মাথায় খেলা করে কিছুদিন আগের সেই ফরেস্ট হিলে জঙ্গি ভাই যে গানটির মুখ তৈরি করেছিলেন সেই গানটির কথা। জঙ্গি ভাইকে অনুরোধ করলেন গানটির বাকী অন্তরাগুলো দ্রুত লিখে দিতে যা দিয়ে ব্যান্ড শো তে নতুন গান নিয়ে উঠবে ‘সোলস’।

ব্যান্ড শো অনুষ্ঠানের রেকর্ডিং এর আগের দিন জঙ্গি ভাই সহ সোলসের নতুন সদস্য পার্থ বড়ুয়াকে নিয়ে আইয়ুব বাচ্চু বসলেন হোটেলের কক্ষে আর সেখানে বসেই একদিন ঘুম ভাঙ্গা শহরের গানটির বাকী অংশগুলো লিখে ফেললেন। পুরো রাত জেগে একটানা গানটি নিয়ে কাজ করলেন আইয়ুব বাচ্চু সহ সোলসের বাকী সদস্যরা এবং গানটি পুরোপুরি তৈরি করে ফেললেন। পরের দিন সকালেই ক্লান্ত, নিদ্রাহীন অবস্থায় ‘একদিন ঘুম ভাঙ্গা শহরে’ গানটি পরিবেশনা করে এলো সোলস। সেদিন কীবোর্ডের দায়িত্বে ছিলেন পার্থ বড়ুয়া, মূল শিল্পী ও গীটার দুটোর দায়িত্ব পালন করেন আইয়ুব বাচ্চু যা ছিল ‘সোলস’ এর সাথে টেলিভিশনের পর্দায় আইয়ুব বাচ্চু’র কণ্ঠের প্রথম সম্পূর্ণ পরিবেশনা। এর আগে বহুবার সোলসের সাথে আইয়ুব বাচ্চু ছিলেন কিন্তু ভোকালের দায়িত্বে ছিলেন তপন চৌধুরী।

সেই ঘটনার ৪/৫ মাস পর অর্থাৎ ৯১ এর শেষ দিকে সোলসের সাথে আইয়ুব বাচ্চু’র কিছু ভুলবুঝাবুঝির কারণে ব্যক্তিগত দূরত্ব তৈরি হয়। ‘হোটেল ব্লু নাইনে’ বসেই সোলসের সাথে শেষবারের মতো সব মিটিয়ে সোলস ব্যান্ড ত্যাগ করলেন আইয়ুব বাচ্চু আর সোলসের অনুমতি নিয়েই ’একদিন ঘুম ভাঙ্গা শহরে’ গানটি সাথে করে নিয়ে এলেন। সেদিন তিনি দীর্ঘদিনের আবাসস্থল ‘হোটেল ব্লু নাইনের’ কক্ষ ছেড়ে দিলেন। সোলস ছেড়ে দেয়ার মাস ছয়েকের মধ্যে ১৯৯২ সালের মাঝামাঝির দিকে জয়, স্বপন ও এস আই টুটুল’কে নিয়ে গড়ে তুলেন ‘এলআরবি’ নামের নতুন ব্যান্ড যার মূল ভোকাল ও গীটার, ব্যান্ড লিডারের দায়িত্ব আইয়ুব বাচ্চু নিজের কাঁধে তুলে নেন আর এভাবেই শুরু হয় নতুন এক আইয়ুব বাচ্চু’র পথচলা।

ফরেস্ট হিলে লেখা আরেকটি গান ‘তুমি ছিলে’ গানটি সোলস থাকাবস্থায় তা নিয়ে কাজ করা হয়নি ফলে গানটি আইয়ুব বাচ্চুর কাছেই থেকে যায় যা জঙ্গি ভাইয়ের অনুমতি নিয়েই আইয়ুব বাচ্চু এলআরবি’র প্রথম অ্যালবামে যুক্ত করেন। ‘তুমি ছিলে ‘ গানটি গীতিকার শহীদ মাহমুদ জঙ্গি, সুরকার ও কণ্ঠ আইয়ুব বাচ্চু ও এলআরবি’র অনবদ্য এক সৃষ্টি যা হয়ে আছে বাংলাদেশের ব্যান্ড সঙ্গীতের চিরসবুজ গান। যে গানটি দিয়ে সোলসের মাধ্যমে আইয়ুব বাচ্চু সর্বপ্রথম টেলিভিশনে সম্পূর্ণ পরিবেশনা করেন সেই ‘সোলস’ থেকে নিয়ে আসা নিজের সুরের ‘একদিন ঘুম ভাঙ্গা শহরে’ গানটি দিয়েই এলআরবির অ্যালবাম শুরু করেন যার পরের ইতিহাসটা সবারই জানা। দুটো গানই আমাদের ব্যান্ড সঙ্গীতের চির সবুজ গান হয়ে আছে।

আমাদের কয়েকজন তরুনের সম্মিলিত প্রয়াস বাংলা গানের জাদুঘর ‘রেডিও বিজি ২৪’ (www.radiobg24.com) শুধু বাংলা গান সংগ্রহ করছে তা নয়, গান নিয়ে গবেষণাও করছে যার ফলশ্রুতিতে বাংলা গানের অনেক তথ্য আমরা জানতে পেরেছি যা আপনাদের নিয়মিত জানানোর চেষ্টা করবো। আমাদের ইচ্ছে অনেক কিন্তু সীমাবদ্ধতার কারণে আমরা হয়তো অনেক কিছু করতে পারছি না। সীমাবদ্ধতা না থাকলে আমাদের ইচ্ছে ছিল ব্যান্ড সঙ্গীতের এসব অজানা ঘটনাপ্রবাহ সহ তথ্যচিত্র নির্মাণ করে সবার কাছে তুলে ধরার যা আমাদের আগামীর প্রজন্মের কাছে স্মরণীয় ব্যান্ড সঙ্গীতের এক একটি দলিল হিসেবে কাজ করবে। আমি ব্যক্তিগত ভাবে অনুরোধ করবো যারা মিডিয়ায় কাজ করছেন তাঁরা আমাদের গুণী মানুষগুলোর কাছ থেকে তথ্যগুলো সংগ্রহ করে নতুন প্রজন্মের কাছে আরও চমৎকার ভাবে তুলে ধরুন যা হতে পারে নতুন প্রজন্মের পথ চলার প্রেরণা। বাংলাদেশের ব্যান্ড সঙ্গীতের স্মরণীয় সময়কার ইতিহাসটা সংরক্ষণের উদ্যোগ এখনই নেয়া প্রয়োজন। এই জায়গাটায় আমাদের মিডিয়ার  প্রচারমাধ্যমগুলোর কাজ করার বাকী এখনও অনেক। কথা হবে আগামী দিন আবার প্রিয় কোন গানের অজানা গল্প নিয়ে। আজ এই পর্যন্তই থাক।
তথ্য সহযোগিতায় ও ধন্যবাদান্তে গীতিকার শহীদ মাহমুদ জঙ্গি।

গান দুটোর লিঙ্ক –
একদিন ঘুম ভাঙ্গা শহরে – https://app.box.com/s/fe9t53jzkldrs3hyft36
তুমি ছিলে আমি ছিলাম – https://app.box.com/s/6bd0831a3cfe1174c410
একটি www.radiobg24.com (বাংলা গানের জাদুঘর) এর নিবেদন ।।

— with Midul Islam Shakil Q, দ্রাবির সাজিদ, Sheikh Mohammed Easin Babu and 34 others.

Check Also

runa laila

শুভ জন্মদিন রুনা লায়লা

মিডিয়া খবর :- শুভ জন্মদিন রুনা লায়লা। আমাদের গানের পাখি আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন সংগীতশিল্পী রুনা লায়লার …

shuvas dutta

সুভাষ দত্ত দেশীয় চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি

মিডিয়া খবর :- সুভাষ দত্ত। দেশীয় চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি। সেই সঙ্গে একজন দক্ষ অভিনেতা, আঁকিয়ে। বিনয়ী, …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares