Home » নিউজ » বৈশাখী টিভির ডিএমডিকে জিজ্ঞাসাবাদ

বৈশাখী টিভির ডিএমডিকে জিজ্ঞাসাবাদ

Share Button

মিডিয়া খবর  :-

বৈশাখী টেলিভিশনের ডিএমডি টিপু আলমকে জিজ্ঞসাবাদ করছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।  আলোচিত অস্ত্র ব্যবসায়ী ও ড্যাটকো গ্রুপের চেয়ারম্যান মুসা বিন শমসের (প্রিন্স মুসা) ৫১ হাজার কোটি টাকা বিদেশে পাচারের ঘটনায় তাকে জিজ্ঞসাবাদ করা হচ্ছে।   বুধবার দুদকের প্রধান কার্যালয়ে দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে তার জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হয়। ২২ জানুয়ারি তাকে তলব করে নোটিশ করা হয়েছিলো।
দুদকের সিনিয়র উপপরিচালক মীর জয়নুল আবেদীন শিবলী তাকে জিজ্ঞাবাদ করেছেন।  প্রিন্স মুসার বিরুদ্ধে অর্থ পাচারসহ অবৈধ সম্পদের অভিযোগ ২০১১ সালে অনুসন্ধান শুরু করে দুদক। অজ্ঞাত কারণে দুদকের ওই অনুসন্ধান আলোর মুখ দেখেনি। তিন বছর পর চলতি বছরের ‘বিজনেস এশিয়া’ ম্যাগাজিনের প্রতিবেদন বিবেচনায় নিয়ে অবারও নতুন করে অনুসন্ধানে নামে দুদক।

২০১৪ সালের ১৮ ডিসেম্বর এ ঘটনায় প্রিন্স মুসাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তিনি সুইস ব্যাংকে আটক ৭ বিলিয়ন ডলার অর্থ্যাৎ ৫১ হাজার কোটি টাকা বিদেশ থেকে অর্জন করেছেন বলে জানিয়েছেন।

দুদক সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছর ‘বিজনেস এশিয়া’ ম্যাগাজিন মুসা বিন শমসেরকে নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে। তাতে বলা হয়, বাংলাদেশি এ ধনাঢ্য অস্ত্র ব্যবসায়ী মুসা বিন শমসেরের ৭ বিলিয়ন ডলার আটকে আছে সুইস ব্যাংকে। সুইস ব্যাংকে আটক হওয়া তার সেই অর্থের খোঁজে মাঠে নেমেছে দুদক।

মুসা বিন শমসের অস্ত্র ব্যবসায়ী হিসেবে আন্তর্জাতিকভাবে ব্যাপক পরিচিত। ড. মুসা ১৯৯৭ সালে যুক্তরাজ্যের নির্বাচনে লেবার পার্টিকে অনুদান দিতে চেয়ে আলোচনায় আসেন। লেবার পার্টির টনি ব্লেয়ার নির্বাচনী প্রচারণার জন্য তার পাঁচ মিলিয়ন ডলার অনুদান দেওয়ার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছিলেন।  উপমহাদেশে তিনি শীর্ষস্থানীয় ধনাঢ্য ব্যক্তি যিনি বিলিয়ন পাউন্ড উপার্জন করেছেন ট্যাঙ্ক, যুদ্ধবিমান ও ক্ষেপণাস্ত্র বেচাকেনার ব্যবসা করে।

ফোর্বস ম্যাগাজিনের রিপোর্ট অনুযায়ী মুসা বিন শমসের বাংলাদেশের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি। তার সম্পত্তির পরিমাণ ১২ বিলিয়ন ইউএস ডলারের বেশি।

Check Also

জাজের ‘বেপ‌রোয়া’ ছবির শু‌টিং বন্ধ

মিডিয়া খবর :- ওয়ার্ক পারমিট না থাকায় ছবির শুটিং না করেই ফিরে যেতে হয়েছে ভারতীয় …

চিত্রায় নৌকাবাইচ

মিডিয়া খবর :- সুলতান বেঁচে থাকতেও তার জন্মদিন উপলক্ষে চিত্রা নদীতে চলতো নৌকাবাইচ। প্রায় ২৭ বছর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares