Home » নিউজ » নান্দনিক ভাসমান মঞ্চ ‘নন্দন মঞ্চ’
nandon-mancha

নান্দনিক ভাসমান মঞ্চ ‘নন্দন মঞ্চ’

Share Button

মিডিয়া খবর:-

দেশের প্রথম ভাসমান মঞ্চ নন্দন মঞ্চ। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি চত্বরে নির্মাণ করা হয়েছে এ্ মঞ্চ। সদ্যনির্মিত এ মঞ্চ ও জলাধারকে ঘিরে প্রায় দেড় হাজার দর্শকের বসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। মঞ্চের দুপাশে রয়েছে গ্রীণরুম ও লাইট স্ট্যান্ড। এ মঞ্চটির চারপাশে থাকবে নান্দনিক ঝর্ণা, পানির নীচে রং-বেরঙের আধুনিক লাইট। এছাড়াও সংস্কারকৃত পুকুরটিতে নন্দন মঞ্চের নীচে মোট ১৫টি ওয়াটার ফাউন্টেন থাকবে।

আগামি ১২ জানুয়ারি এটির উদ্বোধন করা হবে। ওই দিন সন্ধ্যা ৬টায় সংস্কৃতি মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর এ মঞ্চের উদ্বোধন করবেন। সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. রণজিৎ কুমার বিশ্বাস জানিয়েছেন, সংস্কৃতি মন্ত্রীর পরিকল্পনা ও সহায়তায় নির্মিত এ নন্দন মঞ্চ বাংলাদেশে একটি নান্দনিক মঞ্চ হবে। নাটক ও অন্যান্য পরিবেশনা জলপরিবেষ্ঠিত অবস্থায় মঞ্চে উপস্থাপন সত্যি অনন্য।

শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক নাট্য ব্যক্তিত্ব লিয়াকত আলী লাকী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০১২ সালে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে অনুষ্ঠিত মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক জাতীয় নাট্যোৎসব উদ্বোধন করতে আসেন। সে সময় তিনি একাডেমি মাঠের দক্ষিণ পাশে পরিত্যক্ত পুকুর দেখে সেখানে নান্দনিক কিছু একটা নির্মাণের প্রস্তাব দেন। প্রধান মন্ত্রীর নির্দেশে সংস্কৃতি মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূরের পরিকল্পনা ও মন্ত্রণালয়ের সহায়তায় এ মঞ্চ নির্মাণ করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর নান্দনিক কিছু করার ধারনা থেকেই সংস্কৃতি মন্ত্রী এ মঞ্চের নাম নন্দন মঞ্চ দেওয়া হয়েছে। তিনি জানান, ২০১৪ সালের মার্চ মাস থেকে শিল্পকলা একাডেমি চত্বরে এ মঞ্চ নির্মাণের কাজ শুরু হয় । এ মঞ্চ নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ১ কোটি ৮ লক্ষ ২৬ হাজার টাকা। একাডেমিতে বিশাল আকৃতির ভবনসমূহ নির্মাণ হলেও এখানে কোনো জলাধার নেই।

দূর্ঘটনাবশত কোন অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটলে তা নির্বাপনের জন্য প্রয়োজনীয় পানি সরবরাহেরও ব্যবস্থা নেই। নন্দনমঞ্চটি নির্মাণের ফলে একদিকে যেমন সৌন্দর্য বর্ধন হবে। অন্যদিকে অগ্নি প্রতিরোধেও সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।

 

 

Check Also

satv

এসএ টিভির ৪র্থ বর্ষপূর্তি

মিডিয়া খবর:- রাত ১২টা ১ মিনিটে কেক কাটার মধ্য দিয়ে এসএ টিভি চার বছর পূর্ণ …

Qamrul Hassan Bhuiyan

স্বাধীনতাযুদ্ধের ঘটনাসমূহ কথনের প্রকাশনা উৎসব

মিডিয়া খবর:-     :- কাজী চপল -: মুক্তিযুদ্ধ – প্রকাশনা উৎসব হবে ২১ জানুয়ারি ২০১৭,শনিবার  মুক্তিযুদ্ধ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares