Home » নিউজ » হুমকির মুখে রয়েছে সুন্দরবনের ডলফিন

হুমকির মুখে রয়েছে সুন্দরবনের ডলফিন

মিডিয়া খবর :-

হুমকির মুখে রয়েছে সুন্দরবনের তিনটি অভয়ারণ্যের বিরল প্রজাতির ডলফিন। নদীদূষণ, ডলফিন শিকার ও পাচার, আবাসস্থল নষ্ট হওয়াসহ ইরাবতী ও শুশুক ডলফিনের ৭টি হুমকি ইতিমধ্যে চিহ্নিত করেছে বন বিভাগ। সেই সঙ্গে ডলফিন রক্ষায় নতুন প্রকল্পের কাজও শুরু হতে যাচ্ছে চলতি মাসেই।
‘এক্সপ্যান্ডিং দ্য প্রোটেকটেড এরিয়া সিস্টেম টু ইনকরপোরেট ইমপর্ট্যান্ট একুয়াটিক ইকোসিস্টেমস’ নামে এই প্রকল্পের অধীনে ডলফিনের সংখ্যা নির্ণয়, অভয়ারণ্য এলাকা সম্প্রসারণ ও জেলেদের বিকল্প জীবিকার ব্যবস্থা করা হবে। এ ছাড়া ডলফিন ব্যবস্থাপনা উন্নয়ন, বন বিভাগের কর্মী ও জেলেদের প্রশিক্ষণ প্রদান, দক্ষতা ও সচেতনতা বৃদ্ধির পাশাপাশি ডলফিনের জন্য ক্ষতিকর মাছধরা জালের ব্যবহার কমানোরও উদ্যোগ নেওয়া হবে।
বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, ২০১২ সালের জানুয়ারিতে সুন্দরবনের ঢাংমারী, চাঁদপাই ও দুধমুখী এলাকাকে ডলফিনের অভয়ারণ্য ঘোষণা করে পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়। এ তিনটি এলাকার প্রায় ৩২ কিলোমিটার নদীজুড়ে ইরাবতি ও শুশুক ডলফিনের বিচরণ রয়েছে। কিন্তু পরিবেশ প্রতিবেশগত কারণে এসব ডলফিন আজ বিলুপ্তির পথে। ওয়াইল্ডলাইফ কনজারভেশন সোসাইটির প্রধান গবেষক রুবায়েত মনসুর মুগলি জানান, অভয়ারণ্য ঘোষণার পরও এসব এলাকা দিয়ে ভারী নৌযান চলাচল করায় নদীর তীর ভেঙে যাচ্ছে। তীরের মাটি নদীর গভীর স্থানগুলো ভরাট করে ফেলছে। এর ফলে ডলফিনের আবাসস্থল ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।
বন বিভাগ জানিয়েছে, তারা ডলফিনের জন্য যে ৭টি হুমকি চিহ্নিত করেছে তা হলো, সুন্দরবনের নদীতে ভারী নৌযান চলাচল ও পর্যটকের সংখ্যা বৃদ্ধি, অতিরিক্ত পরিমাণে মাছ আহরণ, মাছ ধরার ক্ষেত্রে নেট ও বেহুন্দি জালের ব্যবহার, ডলফিন শিকার ও পাচার, বিষ দিয়ে মাছ ধরার কারণে ডলফিনের ওপর নেতিবাচক প্রভাব, সুন্দরবন সংলঘ্ন এলাকার শিল্প কারখানার বর্জ্যে পানিদূষণ এবং জলবায়ু পরিবর্তন।
ইউএনডিপির সহযোগিতায় এবং জ্ঞ্নোবাল এনভায়রনমেন্টাল ফ্যাসিলিটির অর্থায়নে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে বন বিভাগ। ১৩ কোটি টাকা ব্যয়ে আড়াই বছর মেয়াদি এ প্রকল্পের কাজ শেষ হবে ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে।

Check Also

emi

এশিয়া মডেল ফেস্টে বাংলাদেশের ইমি

মিডিয়া খবর :- বাংলাদেশের মডেল ইমি এ বছর ‘এশিয়ান মডেল অ্যাওয়ার্ড’ পেলেন। রবিবার দক্ষিণ কোরিয়ার সিউলের …

sheikh hasina

স্কুলে দুপুরের খাবারের ব্যবস্থা করতে প্রধানমন্ত্রীর আহবান

মিডিয়া খবর :- দেশের সব স্কুলে দুপুরের খাবারের ব্যবস্থা করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহবান জানালেন প্রধানমন্ত্রী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *