Home » নিউজ » মামুন জাহিদের অ্যালবাম কখন আসবে তুমি

মামুন জাহিদের অ্যালবাম কখন আসবে তুমি

মিডিয়া খবর :-  ধানমন্ডির ধানমন্ডির ছায়ানট সংস্কৃতি ভবন মিলনায়তনে মঙ্গলবার প্রতিশ্রুতিশীল নবীন শিল্পী মামুন জাহিদের অ্যালবাম ”কখন আসবে তুমি”র আনুষ্ঠানিক প্রকাশের উপলক্ষে হয়ে গেল প্রকাশনা অনুষ্ঠান। এই অনুষ্ঠানে নয়টি গানে সজ্জিত অডিও সিডিটির মোড়ক উন্মোচন করেন প্রখ্যাত সঙ্গীতশিল্পী সৈয়দ আব্দুল হাদী।album

আয়নাতে ওই মুখ দেখবে যখন’ অথবা ‘তোমারে লেগেছে এত যে ভালো’-এসব গান সে সময়ের তরুণ-প্রবীণ সবার মুখে মুখে ফিরতো। এখনও তারা ঠোঁটে তুলে নেন এসব গান। আধুনিক বাংলা গান এবং দেশের চলচ্চিত্রের এসব গানের এক অনন্য গীতিকারের নাম কে জি মোস্তফা। বহুদিন পর সেই সব গানগুলোকে কণ্ঠে তুলে নিয়েছেন প্রতিশ্রুতিশীল নবীন শিল্পী মামুন জাহিদ। সেই গানগুলোকে এক সুতোয় গেঁথে প্রকাশিত হলো সঙ্গীত সংকলন ‘কখন আসবে তুমি’। সংগীত সংকলনটি প্রকাশ করেছে বেঙ্গল ফাউন্ডেশন।

অ্যালবামটিতে সংকলিত গানগুলো হলো-কখন আসবে তুমি, কোকিল কেন যে আজ, দিনটা আমার, কেন যে মন খারাপ, এক ফালি ছাতার নিচে, আমি খেলা করি জীবনের সাথে, মাঝে মাঝে তুমি,  তুমি কি আমার জন্যে ও  সুরের আকাশে সন্ধ্যাতারা আমি।

অ্যালবামের স্লিভে মামুন জাহিদের কণ্ঠের মূল্যায়ন করে কে জি মোস্তফার মন্তব্যটি এমন-‘তার সঙ্গে আমার পরিচয় সেই ২০০৪ সালে, ‘তোমারে লেগেছে এত যে ভালো, চাঁদ বুঝি তা জানে’ শীর্ষক গানের সংকলন প্রকাশিত হওয়ার সময় থেকে। আমার পুরনো গানগুলি তার কণ্ঠে নতুন করে শুনে আমি নস্টালজিয়ায় পড়ি। সেই থেকে পঞ্চস্বর শিল্পীগোষ্ঠী আয়োজিত বিভিন্ন অনুষ্ঠানে মামুনের কণ্ঠলাবণ্যে আমি মুগ্ধ হতাম। আমার গানে মামুনের সুরে আমি পেয়ে যাই হারানো অতীতের সুখ একং পুনরায় গান রচনার প্রবল শক্তি। তারপর থেকেই অন্যরকম এক বন্ধুত্ব ও ভালোবাসার সম্পর্কে আমাদের পথচলা শুরু। প্রখ্যাত সুরকার সুবল দাস সুরারোপিত আমার লেখা গানের অ্যালবাম ‘তৃষ্ণা আমার হারিয়ে গেছে’ তৈরির সময় আরো ঘনিষ্ঠভাবে মামুনকে কাছে পাই। গানগুলো আজও জনপ্রিয়। আসলে মনের মাঝে যে গান বাজে, সে গানের শব্দ ও ভাবনা অনেক দূর এগিয়ে নিয়ে যায় যদি সুরে মেলোডি থাকে, যা বাংলা গানের প্রাণ। মামুন জাহিদের সাফল্য এখানেই।’

প্রকাশনা অনুষ্ঠানের আনুষ্ঠানিকতা শেষে অ্যালবামে ঠাঁই পাওয়া গানগুলো গেয়ে শোনান মামুন জাহিদ। রবীন ঘোষের সুর করা ‘তোমারে লেগেছে এত যে ভালো’ গানটি দিয়ে তিনি শুরু করেন। এরপর গাইলেন ‘আকাশে আজ পূর্ণিমা চাঁদ’, ‘কোকিল কেন যে আজ’, ‘কেন যে মন খারাপ’, ‘তুমি কি আমার জন্যে’, ‘কখন আসবে তুমি’, ‘সুরের আকাশে সন্ধ্যাতারা আমি’ সহ অ্যালবাম ও অ্যালবামের বাইরের কিছু গান পরিবেশন করেন।

শিল্পীর সঙ্গে যন্ত্রানুষঙ্গে ছিলেন তবলায় মিলন ভট্টাচার্য, গিটারে শাকিল মোহাম্মদ দীপন, এসরাজে অসিত বিশ্বাস এবং কী-বোর্ডে রূপতনু রুপু। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনায় ছিলেন বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক লুভা নাহিদ চৌধুরী। অনুষ্ঠানটি সবার জন্য উন্মুক্ত ছিল।

Check Also

বাংলার নবান্ন উৎসব জাপানে

মিডিয়া খবর :- এ যেন এক টুকরো বাংলাদেশ জাপানের বুকে। জাপান প্রবাসী বৃহত্তর খুলনা সমিতি বাংলার …

বাবা শাকিব মা অপু আর আব্রামের লেখাপড়া

মিডিয়া খবর:- বয়স তিন হয়নি এখনো তবু বাবা শাকিব ও মা অপু এখন আব্রামের লেখাপড়া …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *