Home » মঞ্চ » ঢাকা পদাতিকের নাটক কথা-৭১ মঙ্গলবার
katha 71

ঢাকা পদাতিকের নাটক কথা-৭১ মঙ্গলবার

মিডিয়া খবর :-

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালার এক্সপেরিমেন্টাল থিয়েটার হলে আগামীকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টায় ঢাকা পদাতিক প্রযোজনা ‘কথা-৭১’ নাটকেরর ৪৭তম প্রদর্শনী হবে। কুমার প্রীতীশ বল রচিত ‘কথা-৭১’ নাটকটি নির্দেশনা দিয়েছেন দেবাশিষ ঘোষ।

‘কথা-৭১’ নাটকের তুলে ধরা হয়েছে একজন মুক্তিযোদ্ধা এখনও আত্মযন্ত্রণায় ভুগছেন। কারণ যুদ্ধাপরাধীরা রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা দখলের পাঁয়তারা করছে। ঐ মুক্তিযোদ্ধা এজন্য সাধারণ মানুষকে সংগঠিত করার উদ্যোগ নেন। এ ব্যাপারে তিনি কোন দলের ব্যানারে কাজটি করেন না। একেবারে ব্যক্তিগত উদ্যোগে তিনি যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবিতে মাঠে নামেন। তার বিশ্বাস, এ কাজে অনেকেই অতঃপর এগিয়ে আসবে। এই মুক্তিযোদ্ধা একটি সফল সমাবেশ সম্পন্ন করে বাসায় ফিরে দেখেন তার সন্তান ঘরে উচ্চ শব্দে ইংরেজি গান শুনছে। মুক্তিযোদ্ধা পিতা এ জন্য বিরক্তবোধ করেন। তিনি গান বন্ধ করে দেন। এতে ছেলে ক্ষুব্ধ হয়ে পিতার সঙ্গে তর্কে লিপ্ত হয়। পিতা-পুত্রের এই বিতর্কের ভেতর দিয়ে বাংলাদেশের মুক্তিযোদ্ধের ইতিহাস বেরিয়ে আসে। মুক্তিযুদ্ধের শুরুতেই অপারেশন সার্চলাইট নিয়ে পাকিস্তানী আর্মিরা পর্যলোচনার মাধ্যমে গণহত্যার রূপরেখা চূড়ান্ত করে। এ সময় পাকিস্তানী হানাদার বাহিনী বর্বর হামলা পরিচালনার দায়িত্ব নিজেদের মধ্যে ভাগ করে নেয়। শুরু হয় গণহত্যা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হলের সেই গণহত্যা প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েটের) অধ্যাপক নূরুউল্লা নিজের ভিডিও ক্যামেরায় ধারণ করার মধ্যমে ৭১ এ গণহত্যার প্রামাণ্য দলিল তৈরি করেন। জগন্নাথ হলের নিহতের লাশ সরায় ডোমরা। এরই মধ্যে চুন্নু ডোম এবং পরদেশী ডোম কথা বলে ঢাকা শহরের নির্মম গণহত্যা নিয়ে। নাটকের ভিতরেই জানা যায়, সংখ্যালঘু নির্যাতন এবং মর্মান্তিক ধর্মান্তরের কথা। অধ্যাপক যতীন সরকারের স্ত্রী কানন সরকারের ধর্মান্তরের প্রতিবাদ করায় মাওলানা সাহেবেকে মসজিদে খুন করে পাকিস্তানী সৈন্যবাহিনী। স্বাধীনতা বিরোধীদের শান্তি কমিটি রাজাকার-আলবদর বাহিনী গঠন, তাদের এবং পাকিস্তানী আর্মিদের অমানবিক নির্যাতন, ধর্ষণ, গণহত্যায় দিশেহারা বাঙালী রুখে দাঁড়ায়। গঠিত হয়, মুক্তি বাহিনী, মুজিবনগর সরকার, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র। স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র থেকে পরিবেশিত অনুষ্ঠান সেদিনের বিধ্বস্ত বাঙালী জাতির মনে বিরাট আশার সঞ্চার করে। ‘কথা ৭১’ নাটকের মাধ্যমেই মুক্তিযোদ্ধারা বারবার ইতিহাসের সত্যের মুখোমুখি হন। মুক্তিযোদ্ধাদের এই সত্য ইতিহাস যথার্থভাবে উপস্থাপন হয়নি বলেই তরুণদের একটি অংশ আজও বিভ্রান্ত, ‘কথা ৭১’ ইতিহাসের সত্যকে প্রতিষ্ঠিত করারই একটি উদ্যোগ মাত্র।

নাটকের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করছেন ফিরোজ হোসাইন, কাজী চপল, সিফাত বিন আজিজ, শেখ শান-এ-মাওলা, এইচ এম মোতালেব, জোসেফ পরিমল রোজারিও, আবুল হাসনাত, কিরণ জাকারিয়া, খন্দকার আতিকুর রহমান, সম্রাট আহমেদ, শ্যামল হাসান, মিল্টন আহমেদ, তারেক আলী মিলন, জেএ বৎস, শরিফুল ইসলাম মামুন, সালাউদ্দিন রাহাত আখতার হোসেন, বিজন কান্তি ধর, কাজী আমিনুর, বর্ণালী আক্তার সেতু, সিরাজুম মুনিরা ইকরা, মারজিয়া জাবীন তম্বী, মীরফারজানা আক্তার নীপা, আরিফ হোসেন প্রত্যয়, আবুবকর দাউদ তুহিন, মামুন উর রশিদ ও কাজী শিলা।

নাটকের নেপথ্য কলাকুশলীরা হলেন মূলভাবনা গোলাম মোস্তফা, মঞ্চ মঞ্জুর আহমেদ, আবহ সঙ্গীত সাইদুর রহমান লিপন, আলোক পরিকল্পনায় ঠান্ডু রায়হান, প্রপস কিরীটি রঞ্জন বিশ্বাস, পোশাক পরিকল্পনায় কাজীশিলা, রূপসজ্জায় শুভাশীষ দত্ত তন্ময়, আলোক প্রক্ষেপণে মাসুদ আহমেদ, আবহসঙ্গীত প্রক্ষেপণে রিয়াজ আহমেদ, মিলনায়তন ব্যবস্থাপনায় মোঃ মনির উজ্জামান তালুকদার, মঞ্চ অধিকর্তা এইচ এম মোতালেব ও খন্দকার আতিকুর রহমান, প্রচার ও প্রকাশনায় তারেক আলী মিলন, প্রধান সমন্বয়কারী ফিরোজ হোসাইন, প্রযোজনা অধিকর্তা মিজানুর রহমান এবং সার্বিক তত্ত্বাবধানে গোলাম কুদ্দুছ।

 

Check Also

শিল্পকলায় উৎসবের শেষদিনে সুরগাঁও

মিডিয়া খবর :- আজ রবিবার গঙ্গা যমুনা নাট্য ও সাংস্কৃতিক উৎসরে শেষ দিনে মঞ্চায়িত হবে …

paicho

শিল্পকলায় আজ পাইচো চোরের কিচ্ছা

মিডিয়া খবর :- ঢাকা পদাতিকের আলোচিত প্রযোজনা পাইচো চোরের কিচ্ছা। গঙ্গা যমুনা নাট্যৎসবে  আজ মঙ্গলবার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *