Home » নিউজ » টেলিটকের কলরেট কমবে
mostafa jobbar

টেলিটকের কলরেট কমবে

মিডিয়া খবর :-

সারাদেশের মানুষ একদামে ইন্টারনেট পায় না। অথচ সবারই একদামে ইন্টারনেট পাওয়া উচিত ছিল। গতির বেলায়ও ব্যতিক্রম। গ্রাহক তার প্রয়োজন মতো ইন্টারনেটের গতি পায় না। এটা ঠিক নয়। ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার শুক্রবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে আইসিটি টাওয়ারে সংবাদ সম্মেলনে ক্ষোভ প্রকাশ করে এসব কথা বলেন। বর্তমান সরকারের অধীনে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের ‘এগিয়ে যাওয়ার আরো চার বছর’ উপলক্ষে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

ডাকমন্ত্রী বলেন, সারাদেশের মানুষকে একদামে ইন্টারনেট দেওয়ার ব্যবস্থা করতে হবে। একইভাবে গ্রাহকের প্রয়োজন অনুযায়ী ইন্টারনেটের গতি নিশ্চিত করতে হবে। গ্রাহক যতটুকু গতি চান তাকে সেই অনুযায়ী দিতে হবে। আমরা এই ব্যবস্থার উদ্যোগ নেব।

তিনি বলেন, প্রতিটি বাসাবাড়িতে যেন ১ এমবিপিএস গতির ইন্টারনেট পৌঁছাতে পারি সেই চেষ্টা করব। এই চেষ্টা সফল হলে ২০৪১ সাল নাগাদ আমরা বাসাবাড়িতে ১ জিবিপিএস গতি ইন্টারনেট পৌঁছাতে পারব।

‘নিরাপদ ইন্টারনেট নিশ্চিত করার জন্য আমরা কাজ করব। তাছাড়া ডটবিডি ও ডটবাংলা ডোমেইন নিবন্ধন সহজ করা, টেলিটকের কলরেট কমানো, বিটিসিএলকে লাভজনকে পরিণত করার বিষয়ে মন্ত্রণালয় উদ্যোগ নিচ্ছে’ বলেও জানান মন্ত্রী।

সরকারি ফোন অপারেটর টেলিটককে এক নম্বরে নিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়ে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী বলেন, এক নম্বরে যেতে আমরা প্রথমে ট্যারিফ কমানোর চেষ্টা করব।

তিনি বলেন, টেলিটকের সিম কেনার জন্য এক সময় পুলিশের লাঠির আঘাত সহ্য করতে হয়েছে গ্রাহককে। সেই টেলিটক কী কারণে এখন পিছিয়ে। কত কমালে কী করলে এক নম্বর আসনে যেতে পারব সেটাই করতে হবে। চেষ্টা করলে সবই সম্ভব। আশা করি সবাই মিলে কাজ করলে টেলিটককে একটি ভালো জায়গায় নিয়ে যেতে পারব।

দেশের প্রথম স্যাটেলাইট বঙ্গবন্ধু-১ আগামী ২৬ থেকে ৩১ মার্চের মধ্যে মহাকাশে উৎক্ষেপণ করা হবে বলেও জানান মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

সংবাদ সম্মেলনে তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, আইসিটি বিভাগের সচিব সুবীর কিশোর চৌধুরীসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আইসিটি বিভাগের চার বছরের বিভিন্ন কার্যক্রম মাল্টিমিডিয়া প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে তুলে ধরে প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, শিগগিরই আইসিটি বিভাগ থেকে চালু করা হবে ‘বঙ্গবন্ধু আইসিটি গ্র্যান্ট’ শীর্ষক বৃত্তি। মাদারীপুরের শিবচরে শেখ হাসিনা ইনস্টিটিউট অব ফিউচার টেকনোলজি (শিফট) চালু করা হবে।

প্রতিমন্ত্রী বললেন, ‘লার্নিং আর্নিং প্রশিক্ষণ নিয়ে দেশের তরুণরা এ পর্যন্ত ৬ লাখ মার্কিন ডলার আয় করেছে। ২০১৮ সালে আরও ৪০ হাজার তরুণকে এই প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। এছাড়া দেশের ২৮টি হাইটেক পার্কে বিনিয়োগ করা হবে ১০০ কোটি ডলার।’

জরুরি হেল্পডেস্ক ৯৯৯ আইসিটি বিভাগ থেকেই চালু হয়েছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

 

Check Also

emi

এশিয়া মডেল ফেস্টে বাংলাদেশের ইমি

মিডিয়া খবর :- বাংলাদেশের মডেল ইমি এ বছর ‘এশিয়ান মডেল অ্যাওয়ার্ড’ পেলেন। রবিবার দক্ষিণ কোরিয়ার সিউলের …

sheikh hasina

স্কুলে দুপুরের খাবারের ব্যবস্থা করতে প্রধানমন্ত্রীর আহবান

মিডিয়া খবর :- দেশের সব স্কুলে দুপুরের খাবারের ব্যবস্থা করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহবান জানালেন প্রধানমন্ত্রী …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *