Home » চলচ্চিত্র » চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শাটল ট্রেন নিয়ে চলচ্চিত্র

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শাটল ট্রেন নিয়ে চলচ্চিত্র

মিডিয়া খবর :- ১৯৮১ সাল থেকে পথচলা শুরু করে এখনো শিক্ষার্থীদের নিত্যসঙ্গী হিসেবে চলমান চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শাটল ট্রেন। শাটল ট্রেন যেন একটি মঞ্চ। আর এই মঞ্চের শিল্পী হলেন শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীরা প্রতিদিন আসা যাওয়ার সময় বগির দেয়ালে ‘ড্রাম’ চাপরিয়ে উচ্চস্বরে গান গেয়ে সারা বগি মাতিয়ে রাখে। এ বগিতেই গান গাইতে গাইতে শিল্পী হয়ে উঠেছেন অনেকেই। তাঁদের মধ্যে আজ দেশের অন্যতম তারকাশিল্পী হলেন নকীব খান, পার্থ বড়ুয়া, এসআই টুটুলসহ আরো অনেকেই।
শুধু গান নয় এই ট্রেনকে ঘিরে গড়ে ওঠেছে হাজারো গল্পকথা অনেক প্রেম কাহিনী। শাটল ট্রেন আর চট্টগ্রাম
বিশ্ববিদ্যালয় একসূত্রে গাঁথা। এই শাটল ট্রেনকে কেন্দ্র করেই রচিত হয় এ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের হাসি-কান্না বা,
প্রেম-ভালোবাসা ও আনন্দ-বেদনার মহাকাব্য। এই মহাকাব্যের কিছু সময়, কিছু ঘটনা আর অনুভূতি নিয়ে নির্মিত হচ্ছে
পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘শাটল ট্রেন’।
সংবাদ সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০ তম ব্যাচের সাবেক শিক্ষার্থী মো: কামরুল আহসান। লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করেন প্রধান সহকারী পরিচালক নির্মাতা রিফাত মোস্তফা। অন্যান্যদেও মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আহমেদুল করির নিপু, রফিকুল হাকিম, মেরিনা সুলতানা।
এ চলচ্চিত্রটিতে থাকছে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য, প্রেম-ভালবাসা, বিচ্ছেদ ও শিক্ষাঙ্গনের নানা বৈচিত্রপূর্ণ কাহিনী । চলতি বছরের জানুয়ারি মাস থেকে এর নির্মাণ শুরু হয়েছে। চলতি বছরের ডিসেম্বর মাসের মধ্যে এর নির্মাণ কাজ শেষ হতে যাচ্ছে।’
এই চলচ্চিত্রটি ২০১৯ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি মুক্তি দেবার পরিকল্পনা রয়েছে।
চলচ্চিত্রটিতে মোট ছয়টি মৌলিক গান রয়েছে। এছাড়াও ট্রেনের বগি ভিত্তিক গান রয়েছে। এতে অভিনয় করছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান ও সাবেক শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩৬তম ব্যাচের ছাত্রী মোহসেনা ঝর্ণার ‘বহে সমান্তরাল’ গল্প অবলম্বনে নির্মিত হচ্ছে এই চলচ্চিত্র। পরিচালনা করছেন ৩৪তম ব্যাচের চারুকলা বিভাগের সাবেক ছাত্র ও চলচ্চিত্র নির্মাতা প্রদীপ ঘোষ এবং প্রধান সহকারী পরিচালক হিসেবে আছেন ৩৪তম ব্যাচের ফিন্যান্স বিভাগের রিফাত মোস্তফা।
এই চলচ্চিত্রটি একযোগে সারা দেশের প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শীত হবে। এছাড়া দেশের বিভিন্ন সিনেপ্লেক্সে এর প্রদর্শন করা হবে। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বর্তমান ও প্রাক্তণ শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা, কর্মচারীগণ ক্যাম্পাসে ৭ দিনের প্রদর্শনী উপভোগ করার সুযোগ পাবে।  টেলিভিশন চ্যানেলে চলচ্চিত্রটির টেলিভিশন প্রিমিয়ার করা হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থীদের গণ-অর্থায়নে নির্মাণ হচ্ছে ্এই চলচ্চিত্র।

 

Check Also

মৌসুমীর লিডার আসছে

মিডিয়া খবর :- দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর আগামী ১৬ নভেম্বর মুক্তি পাচ্ছে দিলশাদুল হক শিমুল পরিচালিত চলচ্চিত্র …

Mr Bangladesh

মিস্টার বাংলাদেশ আসছে ১৬ নভেম্বর

মিডিযা খবর :- একজনের প্রতিশোধ দেশের প্রতিবাদ – এই স্লোগানকে সামনে রেখে ‘মিস্টার বাংলাদেশ’ ছবির …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *